প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আজই ঢাকা-রাজশাহীর ভাগ্য নির্ধারন

আশরাফ রাসেল : টুর্নামেন্টের শুরুটা খুব দুর্দান্ত ভাবে এগিয়েছিলো শক্তিশালী ঢাকা ডায়নামাইটস। ঢাকা পর্বের প্রথম চার ম্যাচে অপরাজিত থেকেই সিলেটে খেলতে গিয়েছিল তারা। সেখানে রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে হার দিয়ে শুরু ঢাকার দুর্দশার, যা চলছে এখনো পর্যন্ত। পরের ম্যাচটি জিতলেও ঝুলে রয়েছে সাকিব আল হাসানের দলের প্লে-অফের টিকিট।

যেখানে ধারণা করা হচ্ছিলো সবার আগে প্লে-অফে পৌঁছে যাবে ঢাকা, সেখানে টুর্নামেন্টের প্রথম পর্বের একদম শেষদিকে এসেও নিশ্চিত হয়নি টুর্নামেন্টের ইতিহাসের সবচেয়ে সফল দলটির শেষ চারের টিকিট। রাউন্ড রবিন পদ্ধতিতে হওয়া প্রথম পর্বের এক্কেবারে শেষ ম্যাচে গিয়েই ঠিক হবে আদৌ সুপার ফোরে যেতে পারবে কি-না ঢাকা।

বিপিএলের চট্টগ্রাম পর্ব শেষেই ঠিক হয়ে গিয়েছিল সুপার ফোরের তিন দল। সমান ৭টি করে জয়ে প্লে-অফ নিশ্চিত করেছিল চিটাগং ভাইকিংস, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস এবং রংপুর রাইডার্স। একইসঙ্গে বিদায় নিশ্চিত হয়েছিল খুলনা টাইটানস এবং সিলেট সিক্সার্সের। তবে ঝুলে ছিল ঢাকা ডায়নামাইটস এবং রাজশাহী কিংসের প্লে-অফ ভাগ্য।

খুলনার বিপক্ষে ম্যাচটিতে তাদের করণীয় এখন শুধু একটিই। সেটি হলো যেকোনো ব্যবধানের জয়। এখনো পর্যন্ত ১১ ম্যাচ শেষে ৫ জয় পাওয়া ঢাকা নেট রানরেট রয়েছে ইতিবাচক, +০.৮৬৪। যে কারণে শেষ ম্যাচ জিতে রাজশাহীর সমান ১২ পয়েন্ট হলেও ভালো নেট রানরেটের কারণে এগিয়ে থাকবে তারাই।

নিজেদের ১২ ম্যাচের ৬টিতে জিতলেও নেট রানরেট ঠিক রাখতে পারেনি মেহেদি হাসান মিরাজের রাজশাহী। তাদের নামের পাশে রয়েছে -০.৫১৮ নেট রানরেট। তাই আজ সন্ধ্যার ম্যাচে রাজশাহী সমর্থকদের প্রার্থনায় থাকবে একটিই বিষয়- সেটি ঢাকার পরাজয়।

আজকের ম্যাচেও একই ফলের পুনরাবৃত্তি করতেই নামবে সাকিব আল হাসানের দল। তবু রাজশাহীর সামনে আশাবাদী হওয়ার পথ হলো নিজেদের শেষ ৫ ম্যাচে জেতেনি ঢাকা। সে ধারাবাহিকতা বজায় রেখে খুলনার বিপক্ষে হেরে গেলেই কপাল খুলে যাবে রাজশাহীর।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত