প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইন্ডিয়া একা কখনো কোন যুদ্ধে জেতেনি

পিনাক ভট্টাচার্য্য : ইন্ডিয়ার সামরিক শক্তির কারো সাথেই যুদ্ধে জেতার ইতিহাস নেই। চীনের সাথে লজ্জাজনকভাবে হেরেছে। পাকিস্তানের সাথে যতোগুলো যুদ্ধ হয়েছে প্রায় দশগুণ বেশি সামরিক শক্তি নিয়েও ইন্ডিয়া জিততে পারেনি। সবগুলো যুদ্ধের ফলাফল অমীমাংসিত।

একমাত্র ব্যতিক্রম ’ একাত্তরের যুদ্ধ। এই যুদ্ধ ইন্ডিয়ার কাছে ইন্ডিয়া পাকিস্তান যুদ্ধ, যদিও ইন্ডিয়া এই যুদ্ধ একা লড়েনি। কারণ এটা আমাদের মুক্তিযুদ্ধ ছিলো। এই যুদ্ধের শেষ পর্বে লড়েছে ইন্ডিয়া আর বাংলাদেশের যৌথ কমান্ড। পাকিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় কমান্ড আত্মসমর্পণ করে যৌথ কমান্ডের কাছেই, কাগজে-কলমে হার স্বীকার করে নেয়। ভাগ্যগুণে সেসময়ে যৌথ কমান্ডের নেতা ছিলেন ইন্ডিয়ান জেনারেল অরোরা। এই বিজয়ের গৌরব কোনোক্রমেই এককভাবে ইন্ডিয়ার একার নয়, সমানভাবে আমাদেরও। বাংলাদেশকে পাশে না নিয়ে এই যুদ্ধ ইন্ডিয়াকে একা একা লড়তে হলে ফলাফল আগের মতোই হতো, বলাই বাহুল্য।

এই যুদ্ধটা যে আসলে আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের বাঁচামরার লড়াই ছিলো, সেকারণেই এই বিজয়ের জন্য ডিসাইসিভ বা নির্ধারক ছিলো মুক্তিযোদ্ধারা। দাঁড়ান দাঁড়ান ইন্ডিয়ান বন্ধুরা, আমি আপনাদের ইন্ডিয়ান লিটারেচার থেকেই উদ্ধৃতি দিবো।

১৯৭১- এ দুই ফ্রন্টে পাকিস্তানের সাথে যুদ্ধ চলছিলো ভারতের। ইস্টার্ন ফ্রন্ট যেটা আমাদের বাংলাদেশ, যেখানে ইন্ডিয়ান আর্মি পেয়েছিলো লড়াকু মুক্তিযোদ্ধাদের। আর ওয়েস্টার্ন ফ্রন্ট, যেখানে ইন্ডিয়ান আর্মি একাই লড়েছিলো পাকিস্তানের বিরুদ্ধে, সেখানে কী হয়েছিলো? ইন্ডিয়া কী জিতেছিলো?

ইস্টার্ন ফ্রন্টে পাকিস্তান পরাজিত হলো। আর ওয়েস্টার্ন ফ্রন্টে? এবার আসুন ইন্ডিয়ান ডিফেন্স রিভিউ থেকে ইন্ডিয়ান ডিফেন্স মিনিস্ট্রির জয়েন্ট ডিরেক্টর কর্নেল অনীল আথালের লেখা থেকে দেখি। তিনি লিখেছেন : ‘ ১৯৭১ ধিং ধ ফবপরংরাব ারপঃড়ৎু ড়হষু রহ ঃযব ঊধংঃ, ধহফ ঃযব চধশ ধৎসু ৎবসধরহবফ ষধৎমবষু ঁহফবভবধঃবফ রহ ঃযব ডবংঃ.’

‘১৯৭১ এ শুধুমাত্র নিশ্চিত বিজয় হয়েছিলো পূর্বাঞ্চলে এবং পাক আর্মি পশ্চিমাঞ্চলে মূলত অপরাজিত ছিলো।’

পশ্চিমাঞ্চলে তো আর মুক্তিযোদ্ধাদের পাশে পাননি দাদারা। নিজের মাজার জোরে তাই আর পারেননি জিততে। আহারে বেচারা। ফেসবুক থেকে

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত