প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাণিজ্যমেলায় সাড়া ফেলেছে কারা স্টল, ২০ দিনে বিক্রি ৩০ লাখ টাকা

সুজন কৈরী : কারাভ্যন্তরে কয়েদিদের তৈরি দেশিয় পণ্য এবারের বাণিজ্যমেলায় ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। হাতে তৈরি পন্যগুলোর দাম নাগালের মধ্যে থাকায় সন্তুষ্টি প্রকাশ করছেন ক্রেতারা। মূলত কারাবন্দীদের সমাজের মূল স্রোতে নেয়ার জন্য তাদের এই ভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ বলে জানিয়েছে কারা কর্তৃপক্ষ।

কারা কর্তৃপক্ষ বলছে, এবারের মেলায় স্টলের সাইজও বড়। গতবার স্টল সাইজ ছিল ৬২৫ বর্গফুট। আর এবার স্টলের সাইজ হচ্ছে ১হাজার ২৫০ বর্গফুট। মেলা শুরুর দিন থেকেই স্টল চালু করা হয়। তবে গুছিয়ে উঠতে কিছুটা সময় লেগেছে। শুক্রবার পর্যন্ত প্রায় ৩০ লাখ টাকার বিভিন্ন পণ্য বিক্রি হয়েছে। যা থেকে লাভের অর্ধেক পাবেন সংশ্লিষ্ট কয়েদিরা। স্টলে সর্বনিম্ম ২০ থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকার পণ্য রয়েছে।

শুক্রবার দেখা যায়, কয়েদিদের হাতে তৈরি বাঁশ, বেত, কাঠ, প্লাস্টিক, পুঁতি আর পাটের বহুমুখী পণ্য নিয়ে সাজানো হয়েছে কারা প্যাভিলিয়ন। সেই সঙ্গে রয়েছে বাহারি ডিজাইনের নকশি কাঁথা, শাড়ি ও লুঙ্গির পাশাপাশি সুস্বাদু আচার। কারাবন্দিদের সৃজনশীলতার প্রশংসা করে ক্রেতারা বলছেন, কয়েদিদের বানানো এসব পণ্যের মান অনেক ভালো। অথচ বাইরে স্বাধীনভাবে যারা কাজ করেন, তারা এমন পণ্য তৈরি করতে পারছেন না। যদি বাইরে এমন তৈরি করা হতো, তাহলে দেশ আরো এগিয়ে যেতো।

কারা প্যাভিলিয়নের দায়িত্বে থাকা ডেপুটি জেলার মিজানুর রহমান বলেন, এবারের মেলায় কারা স্টলের বিক্রি অনেক ভালো। শুক্রবার পর্যন্ত প্রায় ৩০ লাখ টাকার পণ্য বিক্রি হয়েছে। যা থেকে ৫ থেকে ৭ লাখা টাকা লাভ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। লাভের অর্ধেক কয়েদিরা পাবেন। আর বাকিটা সরকারের কোষাগারে জমা দেয়া হবে। তিনি বলেন, স্টলে বিভিন্ন জেলা কারাগারের কয়েদিদেরে তৈরি বিভিন্ন ধরণের পণ্য রয়েছে। তবে রাজশাহী, বগুড়া, কুমিল্লা ও যশোর কারাগারের তৈরি পণ্য বেশি বিক্রি হয়েছে। স্টলে থাকা পণ্য গুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়েছে বেতের তৈরি একটি ঝাড়–। যা খুবই মজবুত ও দেখতেও আকর্ষণিও। প্রতিদিন প্রায় ১শ’ পিস এই ঝাড়– বিক্রি হচ্ছে। হ্যান্ডি ক্র্যাফটের পণ্য ক্রেতাদের বেশি আকৃষ্ট করেছে।

তিনি আরো বলেন, মেলায় স্টল দেয়ার কারণে প্রায় দেড়মাস আগে থেকেই কারা পণ্য বিক্রি বন্ধ ছিল। কিন্তু এরপরও মেলার স্টলে থাকা পণ্যের প্রায় ৭০ শতাংশ বিক্রি হয়ে গেছে। স্টক প্রায় শেষের পথে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত