প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এমফিল ও পিএইচডির গবেষকদের ডাকসু নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় না আনাই ভালো : ড. আবদুল মান্নান চৌধুরী

নাঈমা জাবীন : মুক্তিযোদ্ধা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক প্রক্টর ও সলিমুল্লাহ হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. আবদুল মান্নান চৌধুরী বলেছেন, অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ ডাকসু নির্বাচন আসন্ন। হাইকোর্টের নির্দেশ মোতাবেক খুব সম্ভব এ নির্বাচন আগামী মার্চ মাসের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যে ভোটার তালিকা প্রণয়ন কাজ শেষ হয়েছে বলে জানা গেছে। যদিও এমফিল অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে কিনা, সে বিষয়ে সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় রয়েছে। একটি ছাত্র সংগঠন এমফিল শিক্ষার্থীদের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্তির দাবি জানিয়েছে। এ দাবি গৃহীত হলে এসব শিক্ষার্থী বিভিন্ন হল ইউনিয়ন ও ডাকসু নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবে। প্রশ্ন উঠবে- এমফিলের শিক্ষার্থীদের যদি ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়, তাহলে পিএইচডি গবেষকদের দোষটা কোথায়? তারাও যেন ভোটার হয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারে, সে দাবি ওই একই ছাত্র সংগঠন থেকে উচ্চারিত হওয়া উচিত ছিলো। তবে আমার ব্যক্তিগত দুটি ধারণা এখানে উল্লেখ করছি। সূত্র : সমকাল

তিনি আরো বলেন, আমার মতে, এমফিল ও পিএইচডির গবেষকদের এই নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় না আনাই ভালো। অনেকদিন আগ থেকে আমরা জেনেছি- ছাত্রনং, অধ্যয়নং তপঃ। এই প্রবাদতুল্য উক্তি এখন কোথাও বাস্তবতার ধোপে টিকছে না। আমি মনে করি, এমফিল ও পিএইচডির ছাত্রছাত্রীদের ক্ষেত্রে এ কথা এখন প্রযোজ্য হওয়া উচিত। কেউ হয়তো বলবেন, এতো বছর পর যখন নির্বাচন হচ্ছে তখন বর্তমানটিসহ পরবর্তী কয়েকটি নির্বাচনে এমফিল ও পিএইচডি ছাত্রছাত্রীদের সুযোগ দেয়া প্রয়োজন। এটা যেমন একটি প্রসঙ্গ, ডাকসু নির্বাচনের ক্ষেত্রে আরো একটি প্রসঙ্গ তোলা যায়।

আমাদেরকালে ডাকসু নির্বাচন হতো পরোক্ষ পদ্ধতিতে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার সময় থেকে এ ব্যবস্থা প্রচলিত ছিলো। পরোক্ষ ব্যবস্থায় ডাকসুর কোন পদ কোন হলকে দেয়া হবে, তা নির্বাচনের পূর্বেই নির্ধারিত হতো। কোনো একটি হলকে একের বেশি পদ দেয়া হতো না। এ প্রক্রিয়ায় ডাকসুর ভিপি যদি হতো ফজলুল হক হল থেকে, তাহলে জিএস হতো রোকেয়া হল থেকে। পরবর্তী বছরে তা বদলে যেতো। হয়তো পরের বছর ভিপি হচ্ছে ঢাকা হল থেকে, আর জিএস হচ্ছে শামসুন্নাহার হল থেকে। অন্যান্য পদেরও অনুরূপ বিন্যাস হতো।

সর্বাধিক পঠিত