প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যৌক্তিক আন্দলন সহ্য করতে না পেরে মালিকপক্ষ শ্রমিকদের দমন-পীড়ন-নির্যাতন ও ছাঁটাই করছে, অভিযোগ শ্রমিক নেত্রী জলি তালুকদারের

লিয়ন মীর : শ্রমিকদের যৌক্তিক আন্দোলন সহ্য করতে না পেরে তৈরি পোশাক শিল্পের মালিকরা শ্রকিমদের ওপর দমন-পীড়ন-নির্যাতন করছে এবং তাদের ছাঁটাই করে কারখানা থেকে বের করে দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন গার্মেন্টস শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক জলি তালুকদার।

এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, যৌক্তিক বেতন কাঠামোর দাবিতে আন্দোলন করার অপরাধে বিভিন্ন পোশাক কারখানা থেকে এখন পর্যন্ত প্রায় ৭ হাজার শ্রমিককে ছাঁটাই করা হয়েছে। শুধু ছাঁটাই নয়, শ্রমিকদের গুম করে দেয়া, গ্রেপ্তার, মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করাসহ নানাভাবে দমন-পীড়ন-নির্যাতন করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, শ্রমিকরা পরবর্তী সময়ে যেন আর কখনো কোনো বিষয়ে আন্দোলন করতে সাহস না পায় সেজন্যই শ্রমিকদের উচিত শিক্ষা দিতে পোশাক কারখানার মালিকরা এই অন্যায় এবং বেআইনি পন্থা বেছে নিয়েছে। শ্রমিকরা যৌক্তিক আন্দোলন করায় তাদের গুম, গ্রেপ্তার ও ছাঁটাই করে এভাবে নির্যাতন করা একটা গণতান্ত্রিক দেশে কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য হতে পারে না। শ্রমিকরা দিন-রাত মাথার ঘাম পায়ে ফেলে কাজ করে তাদের শ্রমের নায্য পারিশ্রমিক দাবি করেছে। ত্রুটিপূর্ণ পারিশ্রমিক সংশোধনের দাবি করা যদি অন্যায় না হয়, তাহলে কেন শ্রমিকদের পেটে লাথি মারা হচ্ছে এবং তাদের নির্যাতন করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, পোশাক কারখানার শ্রমিকরা হচ্ছে বাংলাদেশের অর্থনীতির প্রাণ। এই প্রাণ যদি মেরে ফেলা হয়, তাহলে বাংলাদেশ শূন্য হয়ে যাবে। জুলুম-নির্যাতনের মধ্যমে জোর করে শ্রমিকদের দিয়ে কাজ করালে সেই কাজ কখনোই ভালো হবে না। এটা তো সবাই জানে, খুশি মনে কাজ করলে সেই কাজটা ভালো হয়, আর খারাপ মনে কাজ করলে সেই কাজটা ভালো হয় না।

তাই এ বিষয়টি মালিকপক্ষকে উপলব্ধি করতে হবে। কারখানার মালিকদের কাছে দাবি জানাবো, শ্রমিকদের সব ধরনের হয়রানি ও ছাঁটাই বন্ধ করতে হবে। আর যাদের ছাঁটাই করা হয়েছে, তাদের কাজে যোগদানের ব্যবস্থা করতে হবে। এটা করা হলে সবার জন্যই মঙ্গল বয়ে আনবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত