প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সক্রিয় রাজনীতি নিয়ে এখনো কিছু ভাবিনি : রিয়াজ

আশিক রহমান : সক্রিয় রাজনীতি নিয়ে এখনো কিছু ভাবেননি বলে জানিয়েছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক রিয়াজ আহমেদ। এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, নির্বাচনের আগে রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলাম কারণ আমরা মনে করেছি, স্বাধীনতার পক্ষশক্তির ক্ষমতায় আসা দরকারÑ দেশের গণতন্ত্র, উন্নত বাংলাদেশের স্বার্থে। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার জন্য। সেটা করে আমরা সফল হয়েছি। আওয়ামী লীগ আবারও ক্ষমতায় এসেছে। সময়ের দাবির প্রেক্ষিতে, দশ ও দেশের প্রয়োজনে তখন রাজনীতিতে সক্রিয়তা ছিলো আমার। আবারও প্রয়োজন হলে রাজনীতিতে সক্রিয় হবো, তার আগে নয়। ভবিষ্যতে কী হবে এ নিয়ে এখনই কিছু বলতে চাই না।

তিনি আরও বলেন, এই মুহূর্তে রাজনীতিতে সক্রিয় হওয়ার কোনো প্রয়োজন মনে করছি না। তবে যদি প্রয়োজন হয় তখন দেখা যাবে। রাজনীতিতে সক্রিয় হওয়ার ব্যাপার মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কোনো দিক নির্দেশনা আছে কিনা এ বিষয়ে এখনই কিছু বলতে চাচ্ছি না। সেটা সময় হলে  সবাই দেখবেন।  এক প্রশ্নের জবাবে রিয়াজ বলেন, আমরা শিল্পীরা দেশের জন্য কাজ করছি। দেশকে ভালো রাখার প্রয়োজনে আমরা যেকোনো ইতিবাচক, ভালো উদ্যোগের সঙ্গে রয়েছি। জঙ্গিবাদ একটা ভয়ঙ্কর ব্যাধি। জঙ্গিবাদের সঙ্গে যারা যুক্ত রয়েছে তাদের সুপথে ফিরে আসতে আমরা উৎসাহিত করবো। বিভিন্নভাবে, বিভিন্ন মাধ্যমে আমরা আমাদের আহ্বান জানাবো। কারণ জঙ্গিবাদ কখনো ভালো কিছু বয়ে আনে না। জঙ্গিবাদ বিষয়ে মানুষকে আমরা সচেতন করার চেষ্টা করছি। আমরা দুর্নীতির বিরুদ্ধেও সচেতনতামূলক কাজ করছি। এসবের সঙ্গে রাজনীতি সরাসরি সম্পৃক্ত নয়। এসব আমরা করছি দায়িত্ববোধ থেকে।

তিনি বলেন, শিল্পীরা দেশের জন্য কাজ করেন। তারা রাজনীতি করার আগ্রহ দেখাতেই পারেন। বিভিন্ন পর্যায়ের অনেক তারকা সংরক্ষিত নারী আসনে নির্বাচনের আগ্রহ দেখিয়েছেন। তারা মনোনয়ন চাইতেই পারেন। কিন্তু মনোনয়ন চাইলেই তো আর মনোনয়ন পেয়ে গেলেন না।

কয়েকজন মৌসুমি শিল্পী মনোয়ন চেয়েছেন, তাদের কারণে যে সমালোচনা বা অসন্তোষ তৈরি হয়েছে তা আমাদের কারও কাম্য ছিলো না। তারকাদের সংসদ সদস্য হওয়ার আগ্রহের ইতিবাচক-নেতিবাচক দুটি দিকই রয়েছে। তবে হুট করে দলের জন্য কোনো কিছু না করে, কোনো ভূমিকা পালন না করে মনোনয়ন চাওয়ার মধ্যে সুযোগ সন্ধানী ব্যাপারটা প্রকাশ পায়। কিন্তু শিল্পীরা তো সুযোগ-সন্ধানী নন। হতে পারেন না। কখনোই তা হওয়া উচিত নয়।

কী নিয়ে এখন আপনার ব্যস্ততা জানতে চাইলে জনপ্রিয় এই নায়ক বলেন, ব্যবসা নিয়ে এখন আমি ব্যস্ত আছি। একটা বিজ্ঞাপনী সংস্থা রয়েছে আমার, তা দেখভাল করছি। নাটক কম করছি। সিনেমার অফার আসছে। স্ত্রিপ্ট দেখছি, যদি পছন্দ হয় তাহলে করবো, না হলে করবো না। অভিনয়ে তখনই আবার নিয়মিত হবো যখন পছন্দসই স্ত্রিপ্ট পাবো, তার আগে নয়।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত