প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শ্রীপুরে সাব-রেজিষ্টারের বিরুদ্বে দুর্নীতির অভিযোগ

আফজাল হোসেন, গাজীপুর : গাজীপুরের শ্রীপুরে কাজী নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে উপজেলা সাব-রেজিষ্টার সৈয়দ নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করেছেন নিয়োগ প্রার্থীরা।

শ্রীপুর পৌর এলাকার ৬ ও ৭ নং ওয়ার্ডের কাজী ছলিম উদ্দিন মারা যাওয়ার প্রেক্ষিতে গত ২০১৭ সালের জুন মাসে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছিল। এরই প্রেক্ষিতে নিয়োগ কমিটিসহ অন্যান্য আবেদন কারীদের অগোচরে সাব রেজিষ্টার গত ডিসেম্বর মাসে স্থানীয় আবু তাহের নামের একজনের একক প্যানেল তৈরী করে নাম আইন মন্ত্রনালয়ে প্রেরণ করেন।

আবু তাহের শ্রীপুর পৌর এলাকার ১ নং ওয়ার্ডের বাঘমারা গ্রামের তাজউদ্দিনের ছেলে।

নিয়োগ কমিটির সদস্য শ্রীপুর পৌর মেয়র আনিছুর রহমান জানান, আইন অনুযায়ী আমি নিয়োগ কমিটির সদস্য ছিলাম। কিন্তু সবাই যখন জাতীয় নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত তখন সাব-রেজিষ্টার ও সাবেক এমপির পিএস সবার অগোচরে আর্থিক ভাবে লাভবান হয়ে আবু তাহেরের নামে প্যানেল তৈরী করেন। এ ক্ষেত্রে অন্যান্য আবেদন কারী ও নিয়োগ কমিটির কাউকে কিছু অবহিত করা হয়নি।

তিনি আরো জানান, বিষয়টি যখন আমরা জানতে পারি তখনই তদন্তের জন্য আইন মন্ত্রনালয়ে আবেদন করি। এ ছাড়াও নবনির্বাচিত স্থানীয় সংসদ সদস্যও বিষয়টি তদন্তের জন্য আবেদন করেছেন।

কাজী পদে নিয়োগের জন্য আবেদন করেছিলেন স্থানীয় মামুন আহমেদ নামের এক ব্যক্তি তিনি জানান, বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর ৭জন প্রার্থী আবেদন করেছিল তবে নিয়োগ পরীক্ষার জন্য কাউকে কিছু অবহিত করা হয়নি। আমরা এমন দুর্নীতির বিচার চাই।

অভিযোগের বিষয়ে শ্রীপুর উপজেলা সাব-রেজিষ্টার সৈয়দ নজরুল ইসলাম জানান, বিষয়টি সম্পূর্ণ নিয়ম বহির্ভূত ভাবে হয়েছিল। একদিন হঠাৎ করে পূর্বের সংসদ সদস্য এডভোকেট রহমত আলীর ব্যক্তিগত সহকারী জাহাঙ্গীর আলম সিরাজী মুঠোফোন করে আমাকে সংসদ সদস্যের বাসায় তলব করেন সেখানে আমাকে জোড় করে নিয়োগ পত্রে স্বাক্ষর করে নেয় , আমি এর বেশী কিছু বলতে পারব না। নিয়োগে আবেদন কারী কাউকে জানানো হয়নি।

তবে সাব-রেজিষ্টারের এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে জাহাঙ্গীর আলম সিরাজী জানান, তার এমন কোন এখতিয়ার নেই এছাড়াও বিষয়টিও তার নয়।

একক প্যানেলের নাম অন্তর্ভুক্ত হওয়া আবু তাহেরের মুঠোফোনে বক্তব্য নেয়ার চেষ্টা করলে তিনি নানা ধরনের অজুহাত দেখান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত