প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পাঠ্যবইয়ে নারীর প্রতি বৈষম্যমূলক ও অবমাননাকর লেখা পরিবর্তন করা উচিত, বললেন সুলতানা কামাল

তাসমিয়াহ আহমেদ : ষষ্ঠ ও নবম-দশম শ্রেণির গার্হস্থ্য অর্থনীতি পাঠ্য বইয়ে নারীর প্রতি বৈষম্যমূলক এবং অবমাননাকর বেশ কিছু বিষয় রয়েছে। চলতি শিক্ষাবর্ষের পাঠ্যপুস্তকে এসব দেখা যাচ্ছে। সেখান ফর্সা ও কালো রঙের মেয়েদের কি ধরনের পোশাক পরতে হবে, হ্যাংলা কিংবা মোটা মেয়েদের তাদের দুর্বলতা ঢাকতে কি করতে হবে সেসব বিস্তারিত লেখা রয়েছে। এছাড়াও পাঠ্যবইয়ে লেখা রয়েছে, ফর্সা মেয়েদের সব ধরনের পোশাকেই দেখতে সুন্দর লাগে।

পাঠ্যবইয়ে এসব লেখা নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে দেশের সচেতন জনগোষ্ঠীর মধ্যে প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। এ প্রসঙ্গে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল কথা বলেন আমাদের নতুন সময়ের সঙ্গে। তিনি বলেন, নারীর ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে বাংলাদেশের সংবিধানে যে নীতির কথা বলা হয়েছে এবং এ বিষয়ে সরকারের যে অঙ্গিকার রয়েছে, সেসবের সঙ্গে পাঠ্যপুস্তকের এধরনের তথ্য পুরোপুরি সাংঘর্ষিক।

আইনজীবী এবং মানবাধিকার কর্মী সুলতানা কামাল বলেন, পাঠ্যবইয়ে এই লেখা নারীর প্রতি চূড়ান্ত রকম অবমাননাকর। এর মাধ্যমে পুরুষতান্ত্রিক মানসিকতার বিকৃত প্রকাশই ঘটেছে। একজন নারী কোন ধরনের পোশাক পরবে, অথবা না পরবে, কোন পরিস্থিতিতে কি করবে না করবে সেটা নির্ধারণ করে দেয়ার অধিকার কারও নেই। পাঠ্যপুস্তকে এই ধরনের লেখার সঙ্গে যারা জড়িত, তাদের উচিত হবে অনতিবিলম্বে এটি পরিবর্তন করে দেয়া।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত