প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঠাণ্ডায় ‘জমে যাচ্ছে’ যুক্তরাষ্ট্র

নয়া দিগন্ত :  যুক্তরাষ্ট্রের উত্তরাঞ্চলে মাইনাস ৬০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় হাড় কাঁপানো শীত পড়ছে। এতে সেখানকার স্কুল, কলেজ বন্ধ, ডাক বিভাগের জিনিসপত্র বিতরণ স্থগিত করা হয়েছে। কর্মকর্তারা জীবনের জন্য হুমকি হবে এমন অবস্থা সৃষ্টি হতে পারে বলে লোকজনকে সতর্ক করে দিয়েছেন। উত্তরাঞ্চলের সমতল ভূমিতে বুধবার তাপমাত্রা মাইনাস ৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে যেতে পরে জানানো হয়েছিল।

বুধবার সকাল ৬টা পর্যন্ত বিমান সংস্থাগুলো সারা দেশে ১,৭১৮টি ফাইট বাতিল করে। গত সোমবার থেকে বাতিল করা মোট ফাইট সংখ্যা পাঁচ হাজারেরও বেশি। মনটানা থেকে ফোরিডা ও মেইন পর্যন্ত মোট ৩২টি অঙ্গরাজ্য তুষার অথবা প্রচণ্ড ঠাণ্ডার কবলে পড়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যপশ্চিম ও পূর্ব-উত্তরের রাজ্যগুলো তুষার ও চরম ঠাণ্ডার সতর্কতা জারি করা হয়েছে। বুধবার ভোর ৫টায় মিনেসোটার পন্সফোর্ডে তাপমাত্রা ছিল মাইনাস ৬৬। নর্থ ডাকোটার ফারগোতে দাঁত কাঁপানো শীত পড়ে। সেখানে তাপমাত্রা ছিল মাইনাস ৫৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মিনেসপোলিস-এর সেইন্ট পল বিমানবন্দরের তাপমাত্রা ছিল মাইনাস ৫৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সেইন্ট লুইস ও সিনসিনাটিতেও গতকাল সকালে হাড় কাঁপানো শীত ছিল। উত্তরাঞ্চলে সমতল ভূমিতে গতকাল সকালের তাপমাত্রা ছিল মাইনাস ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে। ওয়াশিংটন ডিসি, নিউ ইয়র্ক সিটি ও বোস্টনের তাপমাত্রাও ছিল মাইনাস জিরোর নিচে।

বৃহস্পতিবার শিকাগোর তাপমাত্রা মাইনাস ৪৩, নিউ ইয়র্কে মাইনাস ১১ ও বোস্টনে মাইনাস ১২ থাকবে বলে পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে। মেরু অঞ্চলে বরফ শীতল বাতাসে প্রভাবে মিশিগান থেকে নিউ ইয়র্কের পশ্চিমের কোনো কোনো এলাকায় কয়েক ফুট পুরু বরফ জমতে পারে। মিশিগানের উজানের উপদ্বীপে ১০ ফুট পুরু তুষার পাত হতে পারে। আগামী ৩৬ ঘণ্টায় পশ্চিম নিউ ইয়র্ক রাজ্যে তিন বা চার ফুট পুরু তুষার পাত হতে পারে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত