প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ওয়ার্ক লাইফ ব্যালান্সে আমি একটা প্রিন্সিপল মেনে চলি

আবু বকর সিদ্দীক রাজু  :  ইদানীং আমাকে নিয়ে অনেকের কৌতূহলী দৃষ্টির একটা ব্যাপার খেয়াল করছি। চাকরি-বাকরি ছাড়া প্রায় ৮ মাস চলছে। প্রকাশনা ব্যবসা যা করছি তা এখনো স্ট্রাগল লেভেলে আছে। এর মাঝে বাসা পাল্টেছি। পরিবারের সদস্য বেড়েছে, ভাড়া এবং খরচের খাত বেড়েছে। অথচ দৃশ্যমান বিশেষ কোনো উপার্জন নেই।

যারা এখন ভাবছেন আমি নিশ্চয়ই আগে বিশাল বেতনের চাকরি করেছি, ব্যাংকে জমানো অনেক টাকা তারা কিছুদিন আগে আমার মোটামুটি চলনসই স্যালারি নিয়েও তাদের মুখে সন্দেহজনক প্যাঁচাল শুনেছি। তাদের দুটো ভাবনাই ভুল।

ওয়ার্ক লাইফ ব্যাল্যান্সে আমি একটা প্রিন্সিপ্যাল মেনে চলি। চাকরি করাকালীন সময়ে আমি কখনোই আমার স্যালারি কারো সাথে শেয়ার করতাম না। নট ইভেন টু মাই ক্লোজেস্টস। না জানালে কিছু সমস্যা হয়। তবে আমার মনে হয় জানালে সমস্যা আরো বেশি। বাবা-মা’র মাথায় অবচেতনে কাজ করবে তাদের কোন ভাতিজা/ভাগিনা/ভাতিজি, কলিগের ছেলেমেয়ে আমার থেকে বেশি ইনকাম করে। এই ইনভিজিবল কম্পিটিশনে হেরে যাওয়া তাদের জন্য কষ্টের হতে পারে। আবার আমার স্যালারি যদি বেশি হয় তাহলে কোনো গার্ডিয়ান নিজের পোলাপানকে গিয়ে বলতে পারে, ‘ওই দেখো, রাজু এতো কামায়। তুই কি করস? ঘণ্টা?’ উল্টোও হতে পারে। ‘হাঃ হু, গাল-গপ্পের আর জায়গা পায় না। আমরা গাঙে ভাইসা আসছি মনে করে। কতো কামায়, কেমনে কামায় জানি না ভাবছে। যত্তসব।’ স্যালারি কম হলে অনেকে দুঃখী হবেন। কেউ কেউ পাশবিক একটা আনন্দ পাবেন। এই আনন্দ/বেদনা কোনো কিছুরই উৎস হতে ইচ্ছে করে না। এতোসব সমস্যার একটাই সমাধান আমার কাছে, কিপ সাইলেন্ট।

হ্যাঁ অনেকে আমার আন্তরিক শুভাকাক্সক্ষী হিসেবে খোঁজখবর করছেন। এমন কিছু হেল্প অ্যান্ড সাপোর্ট পেয়েছি যা একেবারেই সারপ্রাইজ। স্বরে অ প্রকাশনার লেখক যারা আমার ওপর আস্থা রেখেছেন/রাখছেন, যারা এর মাঝে জব অফার করেছেন এবং আমার রিজেকশনের পরও ইগো বিসর্জন দিয়ে সাথে আছেন, পরিবারের সদস্য যারা আমার পাগলামীতে আপাত ঝুঁকিতে পড়েছে বটে কিন্তু এখনো আশ্রয় এবং প্রশ্রয় দিচ্ছে, খুব কাছের দুই-একজন বন্ধু- তাদের সবার প্রতি কৃতজ্ঞ। আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ।
যাই হোক। আমি যখন বিয়ে করি তখনো চাকরি করি না, ইন্টার্নশিপ করি। কনফিডেন্ট এই যে ইন্টার্নশিপ শেষ হলে কোম্পানি আমাকে ফুলটাইম জব অফার করবে। বিয়ে করি। তখনো রিজিকের অভাব হয়নি, আলহামদুলিল্লাহ্ এখনো হচ্ছে না। আল্লাহ রাব্বুল আলামীন আমাকে ভালো রেখেছেন। দোয়া রাখবেন, দোয়ায় রাখবেন। বইমেলায় দেখা হবে স্টল নাম্বার ২৫০ যেখানে স্বরে অ এর বই সহ থাকবো। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত