প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শিক্ষার্থীদের প্রফুল্ল রাখতে হবে

জয়নুল হক: এসএসসি পরীক্ষা শুরু হতে আর মাত্র তিন দিন বাকি। পরীক্ষার্থীদের প্রস্তুতি পর্ব শেষে চলছে রিভিশন পর্ব। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে পরীক্ষার্থীদের মানসিকভাবে প্রস্তুত করতে শিক্ষকদের পাশাপাশি অভিভাবকদেরকে খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হয়। অভিভাবকের করণীয় সম্পর্কে দিক নির্দেশনা দিলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান ও সাউথ এশিয়ান স্টাডি সার্কেলের পরিচালক অধ্যাপক ড.অরুণ কুমার গোস্বামী।

মাধ্যমিক পরীক্ষা শিক্ষার্থীদের জীবনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ধাপ। মূলত এর মধ্য দিয়েই শিক্ষার্থীর উচ্চ শিক্ষার দ্বার উন্মোচিত হয়। এসময়, শিক্ষার্থীরা খুবই উদ্বেগ ও উৎকন্ঠায় থাকে। তাই, নিজের সন্তানকে মানসিকভাবে শক্তিশালী করতে অভিভাবকদের খুবই সজাগ দৃষ্টি রাখতে হয়। সর্বদা পরীক্ষার্থীকে সাহস জুগাতে হবে। তাদেরকে উৎফল্ল রাখতে হবে। তার সময়মত খাবারের দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। শিক্ষার্থীদেরকে আন্তরিকতার সাথে রুটিন অনুযায়ী পড়াশোনা করার জন্য উদ্বুদ্ধ করতে হবে। পরীক্ষার্থীদের পড়ালেখার জন্য ভালো পরিবেশ তৈরী করে দিতে হবে। টেলিভিশন, মোবাইলসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে যেন দূরে থাকে সে দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

আর, সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে প্রশ্নফাঁস ও নকল এড়ানোর জন্য অভিবাবকদের সুদৃষ্টি রাখা গুরুত্বপূর্ণ। কোনভাবেই যেন, শিক্ষার্থীরা কোন কোচিং সেন্টার কিংবা অসাধু চক্রের মাধ্যমে প্রশ্নফাঁস এ জড়াতে না পারে। বর্তমানে শোনা যায়, অনেক অভিবাবক নিজেই প্রশ্ন সংগ্রহ করতে উঠেপড়ে লাগে। যা তার সন্তানের নৈতিকতা শিক্ষার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় বাঁধা। এর দ্বারা, মেধার অবমূল্যায়ন করা হয়।

পরীক্ষার্থীদের অনেক সতর্ক থাকতে হবে। পরীক্ষা শুরুর পূর্বেই প্রয়োজনীয় কাগজপত্র (প্রবেশপত্র,কলম প্রভৃতি) সাথে নিয়ে যেতে হবে। সর্বদা পড়া নিয়ে ব্যস্ত থাকলে, হিতে বিপরীত হতে পারে। সময়মত পড়াশোনা করতে হবে। খেলাধুলার জন্যও সময় বের করে নিতে হবে। সর্বোপরি নিজেকে প্রফুল্ল রাখতে হবে। তাহলেই ভালো ফলাফল করা সম্ভবপর হবে।

 

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত