প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মেং ওয়াংঝুর বিরুদ্ধে মার্কিন মোবাইল প্রযুক্তি চুরি ও পাচারের আনুষ্ঠানিক অভিযোগ আনলো যুক্তরাষ্ট্র

আব্দুর রাজ্জাক : চীনের প্রধান মোবাইল কোম্পানি হুয়াওয়ে ও এর অর্থনৈতিক নির্বাহী মেং ওয়াংঝুর বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ পত্র দাখিল করেছে যুক্তরাষ্ট্র। বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম এ কোম্পানি ও এর নির্বাহীর বিরুদ্ধে মার্কিন মোবাইল প্রযুক্তি চুরি, ইরানে পাচার, ব্যাংক জালিয়াতি ও বিচারে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির অভিযোগ আনা হয়েছে। বিবিসি

গত সোমবার মার্কিন জাস্টিস ডিপার্টমেন্ট দুটি পৃথক পৃথক অভিযোগ পত্রে মেং ওয়াংঝু ও তার কোম্পানিকে অভিযুক্ত করেছে। যদিও তাকে গত পহেলা ডিসেম্বর ইরানের ওপর আরোপিত মার্কিন অবরোধ লংঘনের অভিযোগে কানাডায় আটক করা হয়েছে।

ডলার ব্যবহারে ও বাণিজ্যে ইরানের ওপর অবরোধ আরোপ করে রেখেছে ওয়াশিংটন। মার্কিন নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও হুয়াংয়ে তেহরানের সঙ্গে বাণিজ্য অব্যাহত রেখেছে, ব্যাংকে ভুল তথ্য দিয়ে অর্থ আদানপ্রদান করেছে এবং ইরানের ওপর আরোপিত অবরোধ বিষয়ে বিচারেও কোম্পানিটি প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে বলে মার্কিন জাস্টিস ডিপার্টমেন্ট প্রথম অভিযোগে জানিয়েছে।

দ্বিতীয় অভিযোগে বলা হয়েছে, মার্কিন মোবাইল কোম্পানি টি-মোবাইল এর রোবটিক প্রযুক্তি চুরি করে তা ইরানে পাচার করা হয়েছে। যদিও ২০১৭ সালেই উভয় কোম্পানি নিজেদের মধ্যে সকল বিতর্ক মিটিয়ে ফেলেছিলো।

মার্কিন অনুরোধে কানাডা মেং ওয়াংঝুকে আটক করে পরে গৃহবন্দি করেছে এবং নিয়ম অনুযায়ী, তাকে ৬০ দিনের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে হস্তান্তরের আবেদন করতে হবে। ৩০ জানুয়ারি নির্দিষ্ট সময়সীমার শেষ তারিখ, এর মধ্যেই কানাডার আদালতে আবেদন জমা দিতে হবে। তবে এতে বেইজিং ও ওয়াশিংটনের মধ্যে চলমান বাণিজ্যযুদ্ধ নিরসনে কার্যকরি চুক্তি ঝুঁকিতে পড়ে গেলো।

মেং ওয়াংঝুর বিরুদ্ধে মার্কিন অভিযোগ চরম উদ্বেগের জন্ম দিয়েছে দাবি করে এক বিবৃতিতে নিন্দা জানিয়েছে চীন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত