প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অনুমোদনের অপেক্ষায় পঞ্চম প্রজন্মের ব্যাংক

সাজিয়া আক্তার : নথিপত্রের জটিলতা কাটিয়ে চূড়ান্ত অনুমোদনের অপেক্ষায় আরও ৩টি নতুন ব্যাংক। তবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলছে, অচিরেই অনুমোদন পাবে পঞ্চম প্রজন্মের সবক’টি ব্যাংক। এদিকে, বিশ্লেষকরা বলছেন, নতুন ব্যাংকের অনুমোদন দেয়ার ক্ষেত্রে আর্থিকখাতে এর প্রয়োজনীয়তা ভালো করে খতিয়ে দেখা উচিত। সূত্র : ডিবিসি টেলভিশন

কমিউনিটি ব্যাংক অব বাংলাদেশ অনুমোদনের মধ্য দিয়ে দেশের ব্যাংকিংখাতে যাত্রা শুরু হয়েছে পঞ্চম প্রজন্মের বাণিজ্যিক ব্যাংকের। পুলিশ কমিউনিটির জন্য দেয়া এই ব্যাংক দেশি-বিদেশি মিলিয়ে দেশের ৫৮তম বাণিজ্যিক ব্যাংক। এখন চলছে ব্যাংকটির জনবল নিয়োগ কার্যক্রম। তবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলছে নতুন চারটি ব্যাংকের আবেদনের মধ্যে বাকি তিনটিও অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম বলেন, বেঙ্গল কমার্শিয়াল ব্যাংক প্রয়োজনীয় কাগজ-পত্র জমা দিয়েছে। এলওআই দেয়ার ক্ষেত্রে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। বাকি দুই ব্যাংকের তথ্য যাচাই-বাছাই করে সার্বিক তথ্য উপস্থাপনের জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।এখনও যেহেতু তাদেরকে অনুমোদন দেয়া হয়নি, সেহেতু অনুমোদন দেয়ার পর পরবর্তী প্রশ্নগুলো আসবে। তারা যে প্রস্তাব দেবে তার ভিত্তিতেই নির্ধারণ করা হবে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, ব্যাংক অনুমোদন প্রক্রিয়ায় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আরও সক্রিয় ভুমিকা নেয়া উচিত। এ প্রসঙ্গে অর্থনীতিবিদ ড. নাজনীন আহমেদ জানান, এ ব্যাংকগুলো আসলে কতখানি টিকে থাকতে পারবে। এ ব্যাংকগুলোর আদৌ আর্থনীতির ক্ষেত্রে ভার বহন করার ক্ষমতা আছে কিনা এটা প্রশ্ন বিদ্ধ। নতুন ব্যাংকগুলোর ব্যবসায়িক কৌশল ও লক্ষ্য জনগণের কাছে পরিস্কার হওয়া জরুরি। সাধারণ মানুষের স্পষ্ট ধারণা থাকা উচিত, যাতে তারা ঐ ব্যাংকগুলোতে তাদের সঞ্চয় রাখবেন কি না সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।

নতুন এই ব্যাংকগুলো শুরুতেই বেশি হারে সুদ দিয়ে সঞ্চয় বাড়ানোর চেষ্টা করবে। সেটা বাংলাদেশ ব্যাংক কীভাবে সামলাবে সেটাও কিন্তু দেখার ব্যাপার বলে জানান ড. নাজনীন আহমেদ।

অনুমোদনের অপেক্ষায় থাকা পঞ্চম প্রজন্মের বাকি তিনটি ব্যাংক চূড়ান্ত অনুমোদন পেলে দেশি-বিদেশি সরকারি এবং বেসরকারি মিলিয়ে ব্যাংকের সংখ্যা দাড়াবে ৬১টি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত