প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রধানমন্ত্রীর পিঠা-পুলি অনুষ্ঠানে যাবার কোন আগ্রহ নেই বললেন ঐক্যফ্রন্টের এক নেতা

সাজিয়া আক্তার : সংলাপ হবে নাকি চা-চক্র-এনিয়ে এক ধরনের ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছিল নির্বাচনের পরে। কারণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী আবারো সংলাপে বসবেন। সূত্র : বিবিসি বাংলা

পরে তিনি সে বক্তব্য অস্বীকার করে বলেন প্রধানমন্ত্রী সবাইকে নিমন্ত্রণ জানাবেন। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমামকে উদ্ধৃত করে সংবাদ মাধ্যমে খবর বেরিয়েছিল প্রধানমন্ত্রী সংলাপ করবেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত, প্রধানমন্ত্রীর তরফ থেকে গণভবনে শুভেছা বিনিময় এবং চা-চক্রের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে রাজনৈতিক দলের পাশাপাশি বিভিন্ন শ্রেণী পেশার ব্যক্তিদের।

আগামী ২ ফেব্রুয়ারি বিকেল সাড়ে তিনটায় গণভবনে এ চা-চক্র অনুষ্ঠিত হবে। গতকাল (শনিবার) সন্ধ্যায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অফিসে ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের নামে আলাদা-আলাদা দাওয়াত কার্ড পাঠানো হয়।

কিন্তু ঐক্যফ্রন্ট এবং গণফোরামের অন্যতম নেতা সুব্রত চৌধুরী বলেছেন, এ ধরণের শুভেছা বিনিময় বা পিঠা-পুলি খাবার অনুষ্ঠানে আমার যাবার কোন আগ্রহ নাই। কারণ গত নির্বাচনে অনেক আস্থা রেখে অংশগ্রহণ করেছিলাম। কিন্তু মাঠে যখন যাই তখন মনে হয়েছে নির্বাচনে অংশগ্রহণ যেন অপরাধ হয়ে গেছে। আমি ছয়বার আক্রান্ত হয়েছি, জনগণ প্রতারিত হয়েছে। ৩০ তারিখের ভোটে ২৯ তারিখে বাক্স ভরে ফেলেছে।

বিএনপিসহ ঐক্যফ্রন্টের বিভিন্ন শরীক দলের নেতারা বলছেন, প্রধানমন্ত্রীর চা-চক্রের নিমন্ত্রণে যাবার কোন সম্ভাবনা নেই। যদিও জোটগতভাবে সে সিদ্ধান্ত আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো জানানো হয়নি। ঐক্যফ্রন্ট ছাড়া বিভিন্ন বামপন্থী দলগুলোকেও চা-চক্রে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর তরফ থেকে। কিন্তু তাদের প্রতিক্রিয়াও নেতিবাচক।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বছেলেন, মাত্র একমাসও হয়নি ভুয়া ভোটের মাধ্যমে একটা ভুয়া নির্বাচন হয়েছে। সেটার ভিত্তিতে প্রধানমন্ত্রী শপথ নিয়ে দায়িত্ব পালন করছেন। মানুষের ভেতরে তীব্র ক্ষোভ এবং যন্ত্রণা। কোটি-কোটি মানুষ ভোট দিতে পারেনি। এ রকম একটা পরিস্থিতিতে শুভেছামূলক চা-চক্র খুব উপযুক্ত নয়।

এদিকে কয়েকদিন আগে জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার যে আহ্বান জানিয়েছেন-সেটিকে খারিজ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন-এসব ঐক্যের ডাক এখন অর্থহীন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত