প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মায়ের জন্যই অবসর নেননি হিগুয়েইন

স্পোর্টস ডেস্ক : ২০১৬ সালের কোপা আমেরিকার পর আর্জেন্টিনা দলের জার্সি তুলে রেখেছিলেন লিওনেল মেসি ও হাভিয়ের মাশ্চেরানো। আরও একজন সিনিয়র গঞ্জালো হিগুয়েইনও ভেবেছিলেন জাতীয় দলকে বিদায় নেওয়ার কথা। কিন্তু সেটা আর হয়ে ওঠেনি। কেন ওই সময়ে তিনি অবসর নেননি সেটা জানালেন গতকাল। ওই সময়ে হিগুয়েইনের মা অসুস্থ ছিলেন এবং তিনি চেয়েছিলেন হিগুয়েইন আরও কিছুগিদন খেলুক। যার ফলে অবসর নেননি নাম্বার নাইন।

চলতি জানুয়ারি দলবদলের মৌসুমে এসি মিলান ছেড়ে চেলসিতে যোগ দিয়েছেন এই আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। জুভেন্টাস থেকে ধারে বাকি মৌসুমটা কাটাবেন প্রিয় কোচ মাউরিজিও সারির অধীনে। প্রিয় শিষ্যকে কাছে পেয়ে খুশি কোচও। প্রথমবারের মতো চেলসির সংবাদ সম্মেলনে এসে নিজের জীবনের সবচেয়ে দুঃসময় নিয়েও কথা বলেছেন হিগুয়েইন। আর্জেন্টাইন এই ফরোয়ার্ড আরেকটু হলেই যে ফুটবল ছেড়ে দিতেন!

২০১৬ সালের কোপা আমেরিকার ফাইনালে চিলির কাছে হেরেছিল আর্জেন্টিনা। দলটির কাছে টানা দুটি ফাইনাল হারে তারা। তখন অনেকেই ‘বলির পাঁঠা’ বানিয়েছিলেন হিগুয়েইনকে। যদিও তখন হিগুয়েইনের মনের অবস্থাটা জানলে তাকে হয়তো এতটা সমালোচনার শিকার হতে হতো না।

চেলসি তারকা বলেন, ‘দেশে ফিরে আমি ফুটবল ছাড়তে একদম প্রস্তুত ছিলাম। মাকে দেখার পর আমি নিজেকে ধরে রাখতে পারিনি। ফাইনালের আগে পরিবারের সঙ্গে কথা বলে মনে হতো কোনো একটা সমস্যা হয়েছে। কিন্তু আমি কিছুই জানতে পারিনি। ফাইনাল হেরে যখন দেশে ফিরলাম তখন মায়ের মুখে তাকিয়ে ঠিক থাকতে পারলাম না।’

অসুস্থ মায়ের পাশে না থাকতে পারা একজন ছেলের জন্য কতটা কষ্টের, তা বলতেও কুণ্ঠাবোধ করেননি হিগুয়েইন, ‘নিজেকে দোষী মনে হয়েছিল। একে তো ফাইনালে হার, তার ওপর মায়ের এই অবস্থা! মনে হচ্ছিল পুরো পৃথিবী আমার সামনে ভেঙে পড়েছে। মা ছাড়া অন্য কিছুতে মনোযোগ ছিল না আমার। মা সুস্থ হতেই নিজের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেই মায়ের কাছে। আর কখনো ফুটবল খেলব না।’

শুধু দেশের জার্সি নয় হিগুয়েইন আসলে ফুটবলই ছাড়তে চেয়েছিলেন। কিন্তু সেটি সম্ভব হয়নি তাঁর মায়ের জন্য। মায়ের কথা শুনেই তিনি ধরে রেখেছিলেন নিজের ভালোবাসা। হিগুয়েইন বলেন, ‘মা বললেন, তোমার খেলা দেখে দিন শেষে একটু হাসতে পারি। নিজের ভালোবাসা কখনো ছাড়তে হয় না। তুমি যে ফুটবলকে ভালোবেসেছ, সে ফুটবলই খেলবে। মায়ের আদেশ ফেলতে পারিনি। তার আদেশেই এখন পর্যন্ত খেলছি।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত