প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অভিযোগ ও তথ্যের জন্য বিভাগ অনুযায়ী আ.লীগে মনিটরিং ক্যাম্প

আহমেদ জাফর : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামী লীগ ‘নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা শুরু করলে বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাসী বাহিনীর তাণ্ডবে আওয়ামী লীগের পাঁচ জন নিহত এবং ২৫০ জনের বেশি নেতা-কর্মী সমর্থক গুরুতরভাবে আহত হয়েছেন। শতাধিক নির্বাচন কার্যালয় ভাঙচুর আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের বাড়ি ও দোকানপাটে হামলা করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এবং আওয়ামী লীগের জাতীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কো-চেয়ারম্যান এইচ টি ইমাম।

রোববার ধানমণ্ডি আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের পক্ষে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

২০০১ সালের মতো সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা করেছে বিএনপি-জামায়াত এমন অভিযোগ করে এইচ টি ইমাম বলেন, ২৪টি জায়গায় হামলা ও গুলিবর্ষণ করা হয়েছে, ১১টি গাড়িবহরে হামলা চালানো হয়েছে, দুটি পুলিশ ভ্যানেও হামলা চালানো হয়েছে। এছাড়া সারাদেশে আওয়ামী লীগের গাড়িবহরে হামলা, পেট্রোল বোমা নিক্ষেপসহ নানা প্রকার নাশকতা চালানো হচ্ছে। একই সঙ্গে দেশের বিভিন্ন জায়গায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মধ্যে ভয়-ভীতি সৃষ্টি এবং তাদের উপর হামলা করা হচ্ছে বলে আমাদের কাছে রিপোর্ট আসছে। বিএনপি জামায়াত জোট আবারো ২০০১ সালের স্টাইলে সংখ্যালঘু নির্যাতনের পথ বেছে নিয়েছে বিএনপি।

তিনি বলেন,আমাকে আসাদুজ্জামান নূর সাহেব আজকে ফোনে জানালেন নীলফামারীতে বড় রকমের হামলা হয়েছে। প্রতিদিনই আমরা এমন তথ্য পাচ্ছি।

এসব তথ্য, অভিযোগ এবং অওয়ামী লীগ ও মহাজোট মনোনীত প্রার্থীদের নির্বাচনের সকল কার্যক্রম মনিটরিং ও সমন্বয় করার জন্য আওয়ামী লীগ বিভাগ অনুযায়ী ধানমণ্ডি সভানেত্রীর কার্যালয়ে আটটি মনিটরিং ক্যাম্প বসানো হয়েছে।

জেলা, মহানগর, উপজেলা নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত সকল নেতাকে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রক্ষার জন্য ফোন নম্বার দেয়া হয়েছে এবং প্রতিটি ক্যাম্পের দায়িত্ব পালন করবেন ছাত্রলীগের ও যুব লীগের নেতারা। যোগাযোগ ঢাকা

বিভাগ-০২৪৪৬১১৯০৩,সিলেট-০২৪৪৬১১৯০৪,খুলনা-০২৪৪৬১১৯০৫,বরিশাল-০২৪৪৬১১৯০৬,চট্রগ্রাম০২৪৪৬১১৯০৭,ময়মনসিংহ-০২৪৪৬১১৯০৮,রাজশাহী-০২৪৪৬১১৯০৯,রংপুর-০২৪৪৬১১৯১০

এছাড়া মনিটরিং ফেক্রা-০২৪৪৬১১৯১১,এবং আওয়ামী লীগের ধানমণ্ডি পার্টি অফিসের নম্বার দেয়া হয়েছে-০২৯৬৭৭৮৮১।
এইচ টি ইমাম বলেন, আপনরা এই নম্বার গুলোতে ফোন করে বিএনপির-জামায়তের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের অভিযোগ দিতে পারবেন এবং তথ্য জানা পারবেন। জেলা, মহানগর, উপজেলা নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত সকল নেতা সার্বক্ষণিক যোগাযোগ করতে পারবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত