প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাংলাদেশের নির্বাচনে বিরূপ প্রভাব রাখার মতো কনটেন্ট সরাতে আমরা সচেষ্ট : ফেসবুক

আসিফুজ্জামান পৃথিল: বাংলাদেশের নির্বাচনে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে- এমন সব কনটেন্ট সরিয়ে ফেলতে ফেসবুক সচেষ্ট রয়েছে বলে জানিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমটির দক্ষিণ এশিয়ার পাবলিক পলিসি প্রধান শিবনাথ ঠাকরাল। বাংলাদেশের বেশ কয়েকটি জাতীয় দৈনিককে ই-মেইল এ দেওয়া সাক্ষাৎকারে একথা জানিয়েছেন তিনি। তিনি আরো জানান ২০১৭ সালের অক্টোবর থেকে ২০১৮ সালের নভেম্বর পর্যন্ত ৬ মাসে বিশ্বজুড়ে ১২৭ মোট ভুয়া অ্যাকাউন্ট বন্ধ করেছে ফেসবুক। ঢাকা ট্রিবিউন।

ঠাকরাল মনে করেন, তাদের কোম্পানির কারণেই নির্বাচনী এলাকার নেতাদের সাধারণ মানুষের কাছে জবাবদিহিতা অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। ফেসবুককে ব্যবহার করে কিছু মানুষ গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে বাঁধাগ্রস্থ করতে সচেষ্ট থাকে বলেও মন্তব্য করেন ঠাকরাল। তিনি জানান, তাদের কোম্পানি এই লোকদের ব্যাপারে সবসময় সচেষ্ট থাকে। ভবিষ্যতে যতগুলো দেশেই নির্বাচন হবে, সেই দেশগুলোতে গণতান্ত্রিক ধারা অব্যহত রাখতে তাদের প্ল্যাটফর্ম সচেষ্ট থাকবে বলেও নিশ্চিত করেন ঠাকরাল। এদিকে বিশ্বজুড়ে ফেসবুক ব্যবহার করে সহিংসতা বন্ধ করে বিশ্বজুড়ে ফেসবুকের সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটি টিমের সদস্য সংখ্যা ১০ হাজার থেকে ৩০ হাজারে উন্নিত করা হয়েছে। এই টিম বর্তমানে ৫০টি ভাষায় রিভিউ করতে সক্ষম বলে জানান ফেসবুকের এই শীর্ষ কর্মকর্তা।

শিবনাথ ঠাকরাল স্বীকার করে নিয়েছেন, তাদের কারণে আজকের দিনে সাংবাদিকতা ক্ষতিগ্রস্থ হবে। তিনি মনে করেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মানুষ সংবাদের জন্যও আসে। তবে তিনি জানান সাংবাদিকদের মতামতকে তারা গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করেন। ভুয়া সংবাদের বিষয়ে ঠাকরাল বলেছেন, ভুয়া তথ্য আসলে তথ্যপ্রবাহে বিঘ্ন ঘটায়। ফেসবুক এর বিরুদ্ধে একা লড়াই করে কিছু করতে পারবে না। তবে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, সরকার এবং সুশিল সমাজের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় একে রুখে দেওয়া সম্ভব।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত