প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অপেশাদার প্রকাশককে ‘না’ বলুন

আলতাফ শাহনেওয়াজ : একুশ ডিসেম্বর, পৃথিবীর দীর্ঘতম রাত। রাত নানা ভাবনা উদ্রেক করে এবং বিভিন্ন সিদ্ধান্ত নিতেও সাহায্য করে। এ মুহূর্তে যেমন সিদ্ধান্ত নিলাম : কোনো অপেশাদার প্রকাশককে আর কখনো বই দেবো না।

পর পর আমার দুটি বই এক অপেশাদার প্রকাশককে দিয়েছিলাম। কয়েকটি বড় প্রকাশনা সংস্থা আমার বই প্রকাশে আগ্রহ দেখালেও ওই অপেশাদারকে বই দিয়েছিলাম কেবল ভালোবাসা থেকে। ভালোবাসা সর্বদা যাতনা দেয়, ফলে উক্ত প্রকাশকের কাছ থেকে আমিও বিস্তর যাতনা পেয়ে পেয়ে অবশেষে সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছি যে, অপেশাদার আর নয়।

কেবল আমি নই, সূত্র জানিয়েছে, আমার মতো আরও অনেকেই এমন অপেশাদার প্রকাশকের যাতনার শিকার, যা কেউ স্বীকার করেন, কেউ করেন না। তবে এ ক্ষেত্রে লেখকদের মুখ খোলা, অন্তত লেখক যে প্রকাশকের আচরণে অসন্তুষ্ট, সেটা বোধ হয় সর্বসম্মুখে জানিয়ে রাখা ভালো।

আমার ক্ষেত্রে উক্ত প্রাকাশকের কাছ থেকে যেসব যাতনা (উপর্যুপরি মিথ্যা কথাসহ) পেয়েছি, ভবিষ্যতে তা হয়তো সবিস্তারে বয়ান করা যাবে, কিন্তু সেসব এখন নয়। এখন এই দীর্ঘ শীত রাতে হৃদয় খুঁড়ে বেদনা জাগাতে ইচ্ছে করছে না। অতএব, এই সিদ্ধান্ত উপনীত হলাম যে, যতো ভালোবাসাই পাওয়া যাক না কেন অপেশাদার প্রকাশক আর না। কেননা, কখনো কখনো ভালোবাসা ছলনাময়ও বটে।

আমাদের দেশে ছেলে বা মেয়ের বিয়ের আগে যেমন পাত্র ও পাত্রীপক্ষের ঠিকজি খোঁজার চল আছে, বংশ দেখার মনোভাব আছে, তেমনি আপনার বই যেহেতু আপনার পুত্রকন্যাসম, সেহেতু বইটি প্রকাশককে হস্তগত করার আগে, প্রকাশকের রেপুটেশন সম্পর্কে খোঁজখবর করে এবং বুঝে তারপর বইটি দিন। তা না হলে বই অর্থাৎ পুত্রকন্যার বিয়ে হয়ে গেলে আপনার তো তেমন কিছু করার থাকবে না। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত