প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শিল্পীরা ধ্বংসের রাজনীতি করে না, তারা  সৃষ্টিতে আনন্দ পায় : অঞ্জনা সুলতানা

সৌরভ নূর : এবারের নির্বাচনে চলচ্চিত্র অঙ্গনেও একটা নতুন জোয়ার বইছে। নায়ক, গায়ক-গায়িকা অনেকেই এবার প্রার্থী হিসেবে নাম লিখিয়েছেন। এককথায় নির্বাচনের হাওয়া এফডিসি পাড়াতেও বয়ে চলেছে। তবে শিল্পীরা ধ্বংসের রাজনীতি করে না, তারা সৃষ্টিতে আনন্দ পায়। আমরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় রাজনীতি করি। বৃহসপ্রতিবার ডিবিসি টেলিভিশনের টকশো আলোচনায় চিত্রনায়িকা অঞ্জনা সুলতানা এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ঢাকা-১৭ আসন থেকে আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে আছেন নায়ক ফারুক হোসেন, বরিশালে সোহেল রানা, বগুড়ায় কণ্ঠশিল্পী কনকচাঁপা। এছাড়া অনেকেই প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে এবারের নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। প্রচারের ক্ষেত্রেও তারকারা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে সহযোগিতা করছেন।

অঞ্জনা  বলেন, আমাদের প্রধানমন্ত্রী একজন চলচ্চিত্র অনুরাগী সংস্কৃতিমনা মানুষ। তিনি স্বাধীনচেতা মানুষ- যেমন, কবি, সাংবাদিক , লেখক, শিল্পি, নাট্যকার , অভিনেতা, চলচিত্রকার যে যখন সমস্যায় পড়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তাকে হাসায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। শুধু তাই নয়, দশের প্রধানমনত্রী হয়েও ভুল-ত্রুটির জন্য জনগণের কাছে ক্ষমা চেয়েছেনÑ ধরনের উদারতার পরিচয় বিগত সময়ে অন্য কোনোা নেতা-নেত্রীর কাছথেকে পাওয়া যায়নি।

তিনি আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নিজে ব্যবসা করেন না কিন্তু ব্যবসার জন্য তিনি সর্বদা সুযোগ সৃষ্টি করে দেন। এই যে ইকোনোমিক জোন তৈরির মতো সিদ্ধান্ত, তার এই যে দূরদর্শিতা দেশবাসী এর আগে কখনো দেখেছেন কী ?

অপর এক প্রশ্নের জবাবে অঞ্জণা বলেন, ভোটের দিন ভোট কেন্দ্রে ভোটাররা স্বতস্ফুর্তভাবেই যাবেন বলে আমার বিশ্বাস। কেননা জনগণ এখন উন্নয়ন চায়, তারা শান্তি চায়। তবে এটা ঠিক প্রধানমন্ত্রী মুখে ভাত তুলে দেবেন না, ঘরে-ঘরে গিয়ে টাকা দিয়ে আসবেন না। তিনি উন্নয়ন করেছেন, দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেনÑ এটা উপলব্ধি করতে হবে। সেই উন্নয়নের সাথে নিজেকে সামিল করতে হবে বলেও মনে  করেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত