প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চলচ্চিত্র শিল্প ধ্বংস করতেই কী আবারও শুরু অশ্লীলতা?

বিনোদন প্রতিবেদক : ঢাকাই সিনেমা একসময় ছিলো বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম। সিনেমার মাধ্যমে সমাজের যত অসঙ্গতি তুলে ধরা হতো। সুস্থ ধারার চলচ্চিত্রে দর্শকদের সংখ্যা সমসময় বেশি থাকত। সুস্থ ধারার বাহিরে এসে নব্বই পরবর্তী থেকে চলচ্চিত্রে অশ্লীলতা বিরাজ শুরু করে । অশ্লীলতার কারণে সাধারণ দর্শকরা হল বিমুখ হয় একসময়।

সেসময় সুস্থ ধারায় চলচ্চিত্র ফিরে আনতে ও অশ্লীলতা দূর করতে চলচ্চিত্রের বেশকিছু সংশ্লিষ্ট সংগঠন সোচ্চার হয়। চলচ্চিত্রের কয়েকটি সংগঠন সমন্বয়ে অশ্লীলতা দূর করতে পদক্ষেপ গ্রহণ করে। তাতে সফলও হয় চলচ্চিত্রের সংগঠনগুলো।

বর্তমান সময়ে এসে হলে সিনেমা দেখার দর্শক সংখ্যা কম হলেও ভালো গল্প ও সুস্থ ধারার চলচ্চিত্র মুক্তি পেলেই দর্শকদের সিনেমা হলে উপচে পড়া ভিড় দেখা যায়। যদিও বাংলাদেশে ১২০০ থেকে হল সংখ্যা নেমে এসেছে ৩০০ তে। এরপরও সুস্থ ধারার চলচ্চিত্র মুক্তি পেলে ঠিকই উপচেপড়া ভিড় (দর্শকদের) লক্ষ্য করা যায় প্রেক্ষাগৃহগুলোতে। দেশের বাইরের বাংলা ভাষাভাষীরাও অনেক সময় এসব ছবি উপভোগ করেন।

সুস্থধারায় চলচ্চিত্র যখন নির্মাণ আবার শুরু হতে থাকে ঠিক সেসময় ব্যাক্তিগত সার্থে নিজেরাই টাকা লগ্নী করে সিনেমা নির্মাণ শুরু করে। যেকারণে সিনেমার মান নিয়ে প্রশ্ন তোলে অনেকে। আর এই সকল সিনেমা বানানো হয় কিছু নামধারী নায়ক-নায়িকা দিয়ে। যারা চলচ্চিত্রে সি-গ্রেডের অভিনয় শিল্পী। শুধুমাত্র টাকার জন্যই তারা এই প্রচেষ্টা চালিয়ে যান। অনলাইন ওয়েব সিরিজে আবেদনময়ী অশ্লীলতার ছড়াছড়ি নিয়ে ওয়েব সিরিজ ও সিনেমার মধ্যেও যৌনতার সৃষ্টি করে চলচ্চিত্রের সংকটময় সময়ে এসে এই সকল নামধারী নায়ক-নায়িকারা ক্ষতি করে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেন চলচ্চিত্র বোদ্ধারা।

বিগত কয়েকদিন যাবৎ অনলাইন দুনিয়ায় ঘুড়ে বেড়াচ্ছে ‘আমি তোমার রাজা তুমি আমার রানী’ শিরোনামের একটি ছবির ভিডিও ক্লিপ। যেখানে যৌনতার ছরাছরি দেখা যাচ্ছে। ছবিটি পরিচালনা করছেন এ.আর মুকুল নেত্রবাদী। ছবিটিতে জুটি বাঁধেন আদনান আদি ও তানিন সুবহা। ছবিটির শুটিং চলছে। ছবিটির বিষয়ে মুকুল নেত্রবাদীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এখনই কিছু বলতে রাজী হন নি। তবে গল্পের প্রয়োজনে এমন দৃশ্য রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

পরিচালক এ.আর মুকুল নেত্রবাদী এই বছর তিনটি ছবি মুক্তি পায় একটি ছবির সাফল্যের মুখ দেখেনি। বছরের শুরুতে তানিন সুবহা অভিনীত ‘দেমাগ’ নামে একটি সিনেমা মাত্র ১০ টি হলে মুক্তি পায়। ছবিটি সাফল্যের মুখ দেখেনি। এটিও পরিচালনা করেছেন এ.আর মুকুল নেত্রবাদী

কিছুদিন আগে মুক্তি পায় আদনান আদি অভিনীত প্রেমিক ছেলে ছবিটি প্রযোজনা করেন নায়ক আদনান আদি নিজে ছবিটির পরিচালক এ.আর মুকুল নেত্রবাদী প্রেমিক ছেলে ছবিটিতে ৮ জন নায়িকা কে ব্যবহার করা হয়েছে ছবিটি মাত্র ৬টি হলে মুক্তি পায় ছবিটি দর্শক গ্রহণ করেনি

চলচ্চিত্রের সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যাক্তিবর্গরা বলছেন, এই সকল শিল্পীদের জন্য আমাদের চলচ্চিত্রের বেশ ক্ষতি হচ্ছে। সি গ্রেড শিল্পীদের ছবি চলেই না তার উপর অশ্লীলতার কারণে ঢাকাই চলচ্চিত্র থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিলো দর্শকরা। এই সকল শিল্পীরা চলচ্চিত্রের ক্ষতি করার জন্য এসেছে। এমন ধরণের শিল্পীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা দরকার।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত