প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শিল্পমন্ত্রণালয়ের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর
৩০০ মিলিয়ন ডলার খরচে সিলেটে নির্মাণ হচ্ছে সৌদি-বাংলাদেশ মৈত্রী সিমেন্ট কারখানা

স্বপ্না চক্রবর্তী : সিলেটের ছাতক সিমেন্ট কারখানার অব্যবহৃত জমিতে ৩০০মিলিয়ন ডলার খরচ করে নির্মিত হচ্ছে সৌদি-বাংলাদেশ সিমেন্ট কারখানা। সৌদি আরবের বিখ্যাত উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইম্যানশন্স এবং বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশন যৌথ বিনিয়োগে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির এ সিমেন্ট কারখানা নির্মাণ করবে।

বৃহস্পতিবার সিমেন্ট ফ্যাক্টরিটি নির্মাণের লক্ষ্যে সৌদি ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইম্যানশন্স এবং বিসিআইসির মধ্যে একটি কৌশলগত অংশীদারিত্ব চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। শিল্প মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সৌদি ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইম্যানশন্স এর পক্ষে প্রতিষ্ঠানটির প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ এন. হিজি এবং বিসিআইসির পক্ষে সংস্থার চেয়ারম্যান শাহ মোঃ আমিনুল হক এ চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। একই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকৌশল কর্পোরেশনের আওতাধীন জেনারেল ইলেক্ট্রিক ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি (জেমকো) এর উৎপাদন ক্ষমতা বৃদ্ধি ও পণ্য বৈচিত্রকরণে বিনিয়োগের জন্য ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইম্যানশন্সের সাথে একটি পৃথক কৌশলগত অংশীদারিত্ব চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। চুক্তিতে সৌদি ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইম্যানশন্সের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ এন. হিজি এবং জেমকো’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক সুলতান আহমেদ ভূঁইয়া স্বাক্ষর করেন।

এসময় সৌদি ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইম্যানশন্সের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ এন. হিজি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে বিনিয়োগবান্ধব অবকাঠামোর ব্যাপক অগ্রগতি হয়েছে। সৌদি-বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক বিনিয়োগ ও বাণিজ্য সম্পর্কও দিন দিন জোরদার হচ্ছে। এ বিনিয়োগের ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশে নতুন প্রকল্পে সৌদি বিনিয়োগ আরও আসবে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত শিল্পসচিব মো. আবদুল হালিম, সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসী, শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব বেগম, বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকৌশল কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমানসহ মন্ত্রণালয়ের অধীন বিভিন্ন কর্পোরেশন ও সংস্থার প্রধান এবং সৌদি প্রতিনিধিদলের সদস্যরা। এসময় মো. আবদুল হালিম বলেন, এই দ্বিপাক্ষিক চুক্তির মাধ্যমে দুই দেশের সম্পর্কের নতুন একটি মাইলফলক তৈরি হয়েছে। এ বিনিয়োগ চুক্তির ধারাবাহিকতায় আগামী দিনে বাংলাদেশের আরও বড় প্রকল্পে সৌদি বিনিয়োগ আসবে।

এসময় তিনি জানান, চলতি বছরের আগষ্টে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সৌদি আরব সফরে শিল্প মন্ত্রণালয়ের সাথে ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইম্যানশন্সের তিনটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। এসব সমঝোতা স্মারকে বাংলাদেশের শিল্পখাতে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করা হয়। এর ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশে ব্যবসায়ীক সম্পর্ক জোরদার ও শিল্পখাতে বিনিয়োগের ক্ষেত্র চিহ্নিতকরণের লক্ষ্যে সৌদি আরবের উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইম্যানশন্সের একটি প্রতিনিধিদল বাংলাদেশ সফর করে। এ প্রতিনিধিদল রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান জেমকো এবং ছাতক সিমেন্ট ফ্যাক্টরি পরিদর্শন করে বিনিয়োগের প্রাক সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের পর এ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। সৌদি ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইম্যানশন্স বাংলাদেশ ছাড়াও বিশ্বের অন্যান্য দেশে সার, সিমেন্ট, সিরামিক, ইলেক্ট্রনিকসহ অন্যান্যখাতে বিনিয়োগ করেছে। এ প্রতিষ্ঠান সৌদি-বাংলাদেশ মৈত্রী সিমেন্ট কোম্পানি লিমিটেড নির্মাণে প্রাথমিকভাবে ৩শ’ মিলিয়ন এবং জেমকো প্রকল্পে পর্যায়ক্রমে ৩৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত