প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিগত দিনের থেকে নির্বাচনের প্রস্তুতি সর্বোত্তম ও চমৎকার : আইজিপি

সাইদ রিপন: জাতীয় নির্বাচনের বিষয়ে পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেছেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে আইনশৃঙ্খলা প্রস্তুতি বিগত যেকোনো সময়ের চেয়ে সর্বোত্তম ও চমৎকার। এখন পর্যন্ত যে পরিবেশ আছে, সেরকম শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় থাকলে জাতিকে একটি সুন্দর নির্বাচন উপহার দিতে পারবো।

বৃহস্পতিবার আইজিপি, ডিএমপি কমিশনারসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদার সঙ্গে সাক্ষাত করে নির্বাচনের সার্বিক পরিস্থিত জানান। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সঙ্গে বৈঠক নিয়মিত সাক্ষাৎ। মূলত নির্বাচন উপলক্ষে আমাদের পরিকল্পনা প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও নির্বাচন কমিশনকে অবহিত করতে এসেছি। আমাদের সর্বশেষ অবস্থা-পরিস্থিতি ও জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে পুলিশের নিজস্ব পরিকল্পনার কথা কমিশনের সঙ্গে শেয়ার করেছি। পুলিশ প্রশাসন নির্বাচন কমিশনের নিয়ন্ত্রণে নেই বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের এমন অভিযোগ অবাস্তব বলে জানান আইজিপি।

আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, শুধু পুলিশ নয়, সমস্ত প্রশাসনই এখন কমিশনের নিয়ন্ত্রণে। সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পাওয়া গেলে পুলিশ ব্যবস্থা নিচ্ছে। তবে ঢালাও অভিযোগের বিষয়ে আমাদের কিছু করার নেই।

এছাড়া নির্বাচনে সহিংসতা রোধে আগামী ২৪ ডিসেম্বরের মধ্যে লাইসেন্সধারী সব অস্ত্র জমা নিতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা পাঠিয়েছেন ইসির যুগ্ম সচিব ফরহাদ আহাম্মদ খান। চিঠিতে বলা হয়েছে, ৩০ ডিসেম্বর সংসদ নির্বাচনের আগে সব বৈধ অস্ত্র জমা নেয়া প্রয়োজন। তবে সরকারি বা গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনার নিরাপত্তার ক্ষেত্রে এ নির্দেশনার বাইরে থাকবে। সব অস্ত্র সংশ্লিষ্ট থানায় জমা দিতে হবে। নির্দেশনার অনুলিপি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগসহ সংশ্লিষ্ট সব দফতরে পাঠানো হয়েছে।

তাছাড়া নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ইসির গঠিত মনিটরিং সেল সাংবাদিকদের প্রতিদিন ব্রিফ করার সিদ্ধান্ত নিযেছে। প্রতিদিন বিকেল ৫টায় ইসির মিডিয়া সেন্টারে এই ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হবে। ব্রিফিংয়ের এক ঘণ্টা আগে বৈঠক করবে ইসির মিডিয়া সেল। ইসি সূত্র জানায়, মিডিয়া সেলের জন্য ৯ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। তথ্য ভিত্তিক ও সমন্বিত ব্রিফ করার জন্য এই কমিটি বা মিডিয়া সেল গঠন করা হয়েছে। এই মিডিয়া সেল বিভিন্ন শাখা/ অধিশাখা/ অনুবিভাগের প্রতিদিনের যাবতীয় তথ্যাদি সংগ্রহ করবে। নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদকে সভাপতি করে এই সেলে সদস্য সচিব হিসেবে রাখা হয়েছে যুগ্মসচিব (জনসংযোগ) এসএম আসাদুজ্জামানকে।

এছাড়া সদস্য হিসেবে রাখা হয়েছে ইসির অতিরিক্ত সচিব, জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক, যুগ্মসচিব (আইন), যুগ্মসচিব (প্রসাশন ও অর্থ), যুগ্ম সচিব (নির্বাচন ব্যবস্থাপনা-১), যুগ্ম সচিব (নির্বাচন ব্যবস্থাপনা-২) এর দুইজন ও সিস্টেম ম্যানেজারকে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত