প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন জাপা প্রার্থীরা, দিচ্ছেন উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি

ইউসুফ আলী বাচ্চু: আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন জাতীয় পার্টির প্রার্থীরা। সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত গণসংযোগ, পথসভা করছেন। দিচ্ছেন বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি। নির্বাচিত হতে পারলে এলাকায় ব্যপক উন্নয়ন করবেন।

ঢাকা-৬ আসনের মহাজোটের প্রর্থী কাজী ফিরোজ রশিদ, আওয়ামী লীগের নেতাদের নিয়ে দিন রাত মাঠে রয়েছেন। বিভিন্ন পথসভায় সরকারের উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরছেন। মঙ্গলবার সকালে তিনি বৃষ্টিতে ভিজে নারিন্দা, স্বামীবাগ, করাতিটোলায় লাঙ্গলের পক্ষে ভোট চেয়ে গণসংযোগ, প্রচার মিছিল করেন। এ সময় তিনি বলেন, দেশে অপশক্তি তৎপর। ষড়যন্ত্রকারী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মিথ্যা অপবাদ ও বিভ্রান্তি ছড়িয়ে দেশকে অস্থিতিশীল রাষ্ট্রে পরিণত করতে চায়। বিএনপি-জামায়াত জোট ক্ষমতায় আসলে তারা দেশে রক্তের বন্যা বয়ে দিবে। তাই দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা বজায়ের স্বার্থে শেখ হাসিনাকেই আবার ক্ষমতায় বসাতে হবে।

ঢাকা-৪ আসনের মহাজোটের প্রার্থী সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত আওমামী লীগের নেতা-কর্মীদের নিয়ে নির্বাচনী মাঠ চষে রেড়াচ্ছে। এলাবাসীকে দিচ্ছেন বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি এবং বিগত দিনের তার উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরের ভোটারদের কাছে। মঙ্গলবার সকালে বিভিন্ন পথসভায় এলাকাবাসীর উদ্দেশ্যে বাবলা বলেন মহাজোটকে ভোট দিয়ে আমাদের অসমাপ্ত উন্নয়নমূলক কাজ সমাপ্ত করার সুযোগ দিন। শেখ হাসিনা-এরশাদ একসাথে থাকলো কোনো ষড়যন্ত্রেই কাজে আসবে না। দেশের বৃহত্তর স্বার্থে নৌকা-লাঙ্গল এক হয়েছে। এদুটি প্রতীক সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির প্রতীক। অপশক্তিকে রোধ করার প্রতীক। তাই যেখানে লাঙ্গল সেখানে ভোট দিন। আর যেখানে নৌকা সোখানে নৌকা মার্কায় ভোট দিন।

ঢাকা-৫ আসনে ত্রিমুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা দেখছেন স্থানীয় ভোটাররা। আর এই ত্রিমুখী লড়াই হবে প্রধান তিন রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির প্রার্থীদের মধ্যে। মহাজোট গঠন হলেও রাজধানীর এই আসনটি উন্মুক্ত রাখা হয়েছে। এই আসনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী হয়েছেন দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য সাবেক ফুটবলার মীর আব্দুস সবুর আসুদ। ছাত্র রাজনীতি থেকে উঠে আসা টকশোর জনপ্রিয় মুখ আসুদকে শক্তিশালী প্রার্থী হিসেবে দেখছেন স্থানীয়রা। এ আসনে আওয়ামী লীগকে সঙ্গে না পেলেও তিনি রাত দিন চষে বেড়াচ্ছেন তার নির্বাচনী এলাকা। সোমবার বৃষ্টি উপেক্ষা করে রায়েরবাগ এলাকায় গণসংযোগ করতে দেখা গেছে জাপা নেতা আসুদকে। নেতাকর্মীদের নিয়ে দোকানে দোকানে গিয়ে গলা মেলাচ্ছিলেন। এ সময় আসুদ বলেন, এই এলাকার মাটি মানুষের পাশে থেকে বড় হয়েছি। দীর্ঘদিন ধরে এলাকার সামাজিক-সাংস্কৃতিক-ক্রীড়া ও ধর্মীও প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত আছি।

রংপুর অঞ্চলের চেয়েও এখানে লাঙ্গলের জোয়ার বেশি। ৩০ ডিসেম্বর এখানে ভোট বিপ্লব ঘটবে। মানুষ ভোট দিতে পারলে আমাদের বিজয় নিশ্চিত। এখানে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নানা উপদলে বিভক্ত। তারা এক গ্রুপ ভোট করছে অন্যরা গোপনে বিরোধিতা করছে। অনেকেই জাতীয় পার্টিতে যোগ দেওয়ার জন্য যোগাযোগ করছে বলে জানান তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত