প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিএনপি-জামায়াতের ১৪৩ নেতাকর্মী গ্রেফতার

সমকাল :  সারাদেশে বিএনপি-জামায়াতের ১৪৩ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাত থেকে বুধবার বিকেল পর্যন্ত তাদের পৃথক পৃথক অভিযানে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে বরিশালে ৩৮, মেহেরপুরে ১৯, খুলনায় ১৬, মৌলভীবাজারে ১৩, সিরাজগঞ্জে ১২, নেত্রকোনায় ১২, পাবনায় ৬, গাইবান্ধায় ৬, মাগুরায় ৫, পটুয়াখালীতে ৪, যশোরের কেশবপুরে ৪, সুনামগঞ্জে ৩, জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে ২, ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় ১, হবিগঞ্জে ১ ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে ১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ব্যুরো অফিস ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

বরিশাল :বিএনপি-জামায়াতের অন্তত ৩৮ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা করেছে। মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জিয়াউদ্দিন সিকদার বলেন, মঙ্গলবার রাত থেকে বুধবার বিকেল পর্যন্ত বিএনপির ২৬ ও জামায়াতের ১২ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়। তবে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোশারফ হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে না। নির্বাচনে নিরাপত্তার স্বার্থে বিভিন্ন মামলার তালিকাভুক্ত আসামি ও সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। এ ছাড়া উজিরপুরে সংঘর্ষের ঘটনায় বিএনপি-জামায়াতের ৬৪ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। উপজেলার বড়াকোঠা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মামলাটি দায়ের করেন।

মেহেরপুর :গাংনীতে বিএনপি-জামায়াতের ১৯ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। হাড়াভাঙ্গা গ্রামের একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণ থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গাংনী থানার ওসি হরেন্দ্রনাথ সরকার বলেন, মঙ্গলবার মধ্যরাতে নাশকতার পরিকল্পনাকালে অস্ত্র, গুলি, গানপাউডারসহ তাদের গ্রেফতার করা হয়।

খুলনা :পাইকগাছা ও ডুমুরিয়া উপজেলায় অভিযান চালিয়ে বিএনপি-জামায়াতের ১৬ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর মধ্যে পাইকগাছায় সাতজন ও ডুমরিয়ায় নয়জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ওই দুই থানার ওসিরা গ্রেফতারের বিষয় নিশ্চিত করেছেন।

মৌলভীবাজার :জেলার বড়লেখা, রাজনগর, কুলাউড়া ও জুড়ী উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিএনপি-জামায়াতের ১৩ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ওইসব থানার ওসিরা জানান, গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা বিভিন্ন মামলার আসামি। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ :জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে বিএনপি-জামায়াতের ১২ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর মধ্যে উল্লাপাড়ায় জেলা ছাত্রশিবিরের সেক্রেটারি মাসুদ রানাসহ জামায়াত-শিবিরের আটজন, শাহজাদপুর উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকসহ দু’জন ও বেলকুচি থানা বিএনপির সাবেক সহসভাপতি আব্দুছ ছাত্তার সরকারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ওইসব থানার ওসিরা জানান, নাশকতার মামলায় তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

নেত্রকোনা :জেলার বিভিন্ন স্থানে মঙ্গল ও বুধবার অভিযান চালিয়ে বিএনপির ১২ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরী জানান, সুনির্দিষ্ট অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে আসামিদের গ্রেফতার করা হয়েছে। বিনা কারণে কাউকে আটক বা হয়রানি করা হচ্ছে না।

পাবনা :জিহাদি বইসহ জামায়াতের ছয় নারীকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে পাবনা সদর উপজেলার মালঞ্চি ইউনিয়নের বোর্ডঘর এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। পাবনা সদর থানার পরিদর্শক জালাল উদ্দিন গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চত করেছেন।

গাইবান্ধা :সাঘাটা উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মঈন প্রধান লাবুসহ জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে গত মঙ্গলবার রাতে বিএনপির ছয় নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মাগুরা :শালিখা উপজেলার সীমাখালী বাজারে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী কার্যালয় ভাংচুর ও বোমা হামলার ঘটনায় বিএনপি-জামায়াতের ৪৯ নেতাকর্মীর নামে মামলা হয়েছে। বুধবার শতখালী ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বর ও আওয়ামী লীগ নেতা মাহাতাব হোসেন বাদী হয়ে মামলাটি করেন। এ মামলায় থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মিল্টন মুন্সিসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

কেশবপুর (যশোর) :কেশবপুর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে জামায়াত নেতাসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে। থানার ওসি শাহিন জানান, মঙ্গলবার রাতে ও বুধবার দুপুরে অভিযান চালিয়ে নাশকতা মামলায় তাদের গ্রেফতার করা হয়।

পটুয়াখালী :কলাপাড়া ও গলাচিপা উপজেলায় বিএনপি-জামায়াতের চার নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর মধ্যে কলাপাড়ায় দু’জন ও গলাচিপায় দু’জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সংশ্নিষ্ট থানার পুলিশ কর্মকর্তারা গ্রেফতারের বিষয় নিশ্চিত করেছেন।

সুনামগঞ্জ : নাশকতার মামলায় সুনামগঞ্জে বিএনপি নেতাসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ওসি ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানান, তাদের বিরুদ্ধে নাশকতার মামলা রয়েছে।

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) : সরিষাবাড়ীতে অটোরিকশায় অগ্নিসংযোগকে কেন্দ্র করে বিএনপির ১০৩ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে যুবলীগ নেতা মামলা করেন। ওই মামলায় বুধবার সকালে দু’জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সরিষাবাড়ী থানার ওসি মাজেদুর রহমান মামলার কথা স্বীকার করে বলেন, আসামিদের মধ্যে দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মুক্তাগাছা (ময়মনসিংহ) :নৌকার মিছিলে মোটরসাইকেলে আগুন দেওয়ার অভিযোগে বিএনপি নেতা ও ইউপি চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান লেবুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে ময়মনসিংহ শহরের টাউন হল মোড় থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার নামে মুক্তাগাছা থানায় মামলা রয়েছে। মুক্তাগাছা থানার ওসি আলী আহম্মেদ মোল্লা গ্রেফতারের বিষয় নিশ্চিত করেছেন।

হবিগঞ্জ :বাহুবল উপজেলা জামায়াতের আমিরসহ দু’জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার শাহপুর গ্রাম থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। বাহুবল থানার ওসি মাসুক আলী গ্রেফতারের বিষয় নিশ্চিত করে বলেন, তাদের বিরুদ্ধে একাধিক নাশকতার মামলা রয়েছে।

শিবগঞ্জ ( চাঁপাইনবাবগঞ্জ) :শিবগঞ্জ উপজেলার শাহবাজপুর ইউপি চেয়ারম্যান তোজাম্মেল হককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার সকালে হাজারবিঘি বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। শিবগঞ্জ থানার ওসি শিকদার মশিউর রহমান জানান, একাধিক নাশকতার মামলার আসামি জামায়াত নেতা তোজাম্মেল হককে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

ঈশ্বরদী (পাবনা) :বিএনপি-জামায়াতের দেড়শ’ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে বিস্ম্ফোরকদ্রব্য আইনে ঈশ্বরদী থানায় মামলা করেছেন যুবলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম রাফিক। ওই মামলার পর থেকে ঈশ্বরদীতে বিএনপি নেতাদের মধ্যে গ্রেফতার আতঙ্ক বিরাজ করছে। ফলে নির্বাচনী মাঠ ছেড়ে গা ঢাকা দিয়েছেন নেতারা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত