প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ঘিরে টাইগারদের নতুন পরিকল্পনা

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রথম ম্যাচ হেরে সিরিজে ১-০ তে পিছিয়ে রয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। বিদেশের মাটি থেকে উইন্ডিজের বিরুদ্ধে সিরিজ জয় করে ফিরলেও ঘরের মাঠে সিরিজ বাঁচানোর লড়াইয়ে নেমেছে টাইগাররা। সে লড়াইয়ের দ্বিতীয় ম্যাচে আগামীকাল মিরপুরের মাঠে নামবে স্বাগতিকরা। এই ম্যাচ ঘিরে নতুন কিছু পরিকল্পনা করেছেন টাইগার কোচ স্টিভ রোডস এবং ব্যাটিং কোচ নেইল ম্যাকেঞ্জি।

বাঁচা-মরার ম্যাচে তিন বিভাগেই উন্নতিতে মনোযোগ দিচ্ছে বাংলাদেশ। সৌম্য সরকার সতীর্থদের দিয়েছেন পরিস্থিতি অনুযায়ী বুদ্ধি খাটিয়ে খেলার তাগিদ। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান মনে করেন, আগের ম্যাচের ভুলগুলো না করলে জেতা সম্ভব হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার ম্যাচ শুরু হবে বিকাল পাঁচটায়। এর আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে সৌম্য জানান, সিরিজ বাঁচিয়ে রাখার চ্যালেঞ্জ নিতে সম্পূর্ণ প্রস্তুত তারা।

‌‌‌প্রথম ম্যাচ হেরে পিছিয়ে আছি আমরা। চেষ্টা করব দৃঢ়ভাবে ঘুরে দাঁড়াতে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শেষ টি-টোয়েন্টি সিরিজেও প্রথম ম্যাচ হেরেছিলাম। পরের দুই ম্যাচে ভালোভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে সিরিজ জিতেছিলাম। এখানে প্রথম ম্যাচে যে ভুলগুলো করেছিলাম, যেমন শুরুতে কিছু উইকেট হারিয়ে ফেলা, তা যদি পরের ম্যাচে না হয় তাহলে আমরা ভালো করবো।’

সিলেটে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ৮ উইকেটে হারে বাংলাদেশ। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১৩০ রানের লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলে ৫৫ বল বাকি থাকতে। সেই হারের ব্যবচ্ছেদ করলেন সৌম্য।

‌ওরা এই সংস্করণে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন। আমরা চেষ্টা করছি ওদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে খেলার। হয়তো বুদ্ধির কোনো ঘাটতি ছিল। আমরা শুরুতে চড়াও হতে চেয়েছিলাম। আমরা যদি বুদ্ধি খাটিয়ে খেলতাম, পেসারদের প্রথম কিছু ওভার সতর্ক থেকে সামলাতাম, তাহলে শেষের দিকে রান কাভার করে ফেলতে পারতাম।’

‌শুরুতে উইকেট পড়ে যাওয়ায় মাঝখানে একটু মন্থর ব্যাটিং করতে হয়েছিল। পরের ম্যাচে শুরুতে পেসারদের একটু দেখেশুনে খেলতে হবে। একই সঙ্গে পাওয়ার প্লেটাও ভালোভাবে ব্যবহার করতে হবে। উইকেট যদি হাতে রাখতে পারি, তাহলে শেষ দিকেও ভালো করা যাবে।’

দলের ১২৯ রানের ৬১ রান এসেছিল সাকিব আল হাসানের ব্যাট থেকে। তেমন কোনো সঙ্গী পাননি অধিনায়ক। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংসে ঝড় তুলেছিলেন শেই হোপ। এগিয়ে এসেছিলেন অন্য ব্যাটসম্যানরাও। সৌম্য মনে করেন, এই পর্যায়ে একজনের পক্ষে লড়াইয়ের পুঁজি এনে দেওয়া খুব কঠিন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত