প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভোট দিতে পারবে কিনা সাধারণ জনগণ সংঙ্কায় আছে : হাসান তারেক চৌধুরী

মঈন মোশাররফ : বাম নেতা হাসান তারেক চৌধুরী বলেছেন, নির্বাচনী প্রচারণায় বিরোধী পক্ষকে বাধা দিচ্ছে সরকার। হামলা ও নির্যাতন হচ্ছে বিরোধী পক্ষের উপর। নির্বাচনী প্রচারণা ও নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করার জন্য লেভেল প্লেইং ফিল্ড তৈরি হচ্ছে না। বিরোধী পক্ষকে বাধাগ্রস্ত করতে পুলিশকে ব্যবহার করছে। সরকারি কর্মকর্তারা নির্বাচনকে প্রভাবিত করছে। ভোট দিতে পারবে কিনা সাধারণ জনগণ সংঙ্কায় আছে। বুধবার বিবিসি নিউজে তিনি এসব কথা বলেন ।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের পূর্বে উপযুক্ত নির্বাচনী পরিবেশ সৃষ্টি করতে পারে নাই। ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। প্রচার অভিযানে সহিংসতা চলছে, কিন্তু কমিশন কোনো ভূমিকা রাখছে না। তিনি বলেন ক্ষুদ্র বিরোধী দলের উপরেও নির্যাতন হচ্ছে। বাম গণতান্ত্রিক জোটের প্রার্থীদের প্রচারনায় বাধা দিচ্ছে সরকারি দল। এমনকি অনেক জায়গায় সংবাদ সংগ্রহের সময় সাংবাদিকরা বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। কর্মীরা নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছে। যেখানে প্রার্থীরা সরকারের সমালোচনা করেছে, সেখানেই হামলা হয়েছে। সরকারি দল জনসমর্থন হারানোর আতঙ্কে আছে ।

তিনি আরো বলেন, সংলাপ হওয়ার পর জনগণ আশা করেছিলো সরকার নমনীয় হবে, দমন নীতি থেকে বের হয়ে আসবে। কিন্তু তারা আরো বেশি দমন নীতিতে চলে গছে। এইভাবে সুুষ্ঠ নির্বাচন হতে পারে না। নির্বাচন কমিশন এক্ষেত্রে কোনো ভূমিকা পালন করতে পারছে না। নির্বাচন কমিশনের বিধিমালার সংস্কার চেয়েছিলাম আমরা। কিন্তু তা করা হয় নাই। যদি বিধিমালা সংস্কার করা হতো তাহলে সরকারি দল কমিশনের উপর প্রভাব খাটাতে পারতো না। তিনি বলেন, একটা সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য যে পরিবেশের প্রয়োজন তার অভাব রয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত