প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নির্বাচনে ছাত্র আন্দোলনের প্রভাব নিয়ে বিএনপি-আওয়ামী লীগে দ্বিমত

উল্লাস মূর্তজা : সম্প্রতি ঢাকার রাজপথে ঘটে যাওয়া দুই আলোচিত ছাত্র আন্দোলন আগামী একাদশ জাতীয় নির্বাচনে কোনো প্রভাব ফেলবে কিনা, তা নিয়ে বিপরীত মত পাওয়া গেছে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির কাছ থেকে৷

বিএনপি নেতা শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানি বলেছেন, কোটা আন্দোলন ও নিরাপদ সড়ক আন্দোলন, সরকারের বিরুদ্ধে আমাদের আন্দোলন সব একসূত্রে গাঁথা৷ আমরা ব্যালটের মাধ্যমে এই সরকারকে বিদায় করবো৷ ‘ডয়চে ভেলে’কে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, রাষ্ট্রের মেরামতের চেয়ে ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা আসলে সরকারের প্রতি ক্ষোভই বেশি প্রকাশ করেছে৷ তরুণরা রাষ্ট্র মেরামতের যে দাবি করেছে, সেই দায়িত্ব নিতে বিএনপি প্রস্তুত৷ নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের দাবিতে তরুণরা সারা দেশব্যাপী আন্দোলন করেছে৷ এরা রাষ্ট্রের মেরামত চায়, আমরাও মাঠে ঐক্যবদ্ধ আছি৷ এই দায়িত্ব আমাদের ওপরও বর্তায়৷ আমরা তরুণ ও প্রবীণরা মিলে এই দায়িত্ব নিতে প্রস্তুত।

এদিকে বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ দাবি করেছেন, এই আন্দোলন পুরো তরুণ প্রজন্মের আন্দোলন নয় এবং এর সঙ্গে সরকারের কোনো বিরোধ নেই। এই আন্দোলন আগামী নির্বাচনের ফলাফলে কোনো প্রভাব ফেলবে না। নিরাপদ সড়ক আমরাও চাই৷ এখানে তো কোনো বিরোধ নেই, একটা শহরের কিছু সংখ্যক তরুণের আন্দোলন দিয়ে সারা দেশের পরিসংখ্যান বিচার করা ঠিক হবে না।

তিনি বলেন, বিদ্যুৎ ও তথ্য প্রযুক্তিতে সরকারের বিশাল উন্নয়নের ফলে এসব খাতে যতটা উন্নয়ন ও কাজের সুযোগ তৈরি হয়েছে, সেটিই বিবেচনা করবেন তরুণ প্রজন্ম এটাই আমার বিশ্বাস।

উল্লেখ্য যে দু’টি আন্দোলন বেশ আলোচিত হয়েছে, তার একটি কোটা সংস্কারের আন্দোলন৷ অন্যটি নিরাপদ সড়ক চেয়ে আন্দোলন৷ এই দু’টি আন্দোলনেই পুলিশের সঙ্গে আন্দোলনকারীদের সংঘর্ষ হয়েছে৷ সরকারি দলের ছাত্র সংগঠনের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের ওপর চড়াও হওয়া এবং তাদের মারধরের অভিযোগ উঠেছে৷ শুধু তাই নয়, ছাত্রলীগ সাংবাদিকদের ওপরও হামলা করেছে বলে স্থানীয় গণমাধ্যম খবর প্রকাশ করেছিলো৷

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত