প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রেজা কিবরিয়ার নামে বিতর্কিত নির্বাচনী পোস্টার বিলি

প্রথম আলো : হবিগঞ্জ-১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনের জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী ও গণফোরামের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য রেজা কিবরিয়ার নামে একটি বিতর্কিত ও ভুয়া নির্বাচনী পোস্টার ও লিফলেট বিলি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। পাশাপাশি একই পোস্টার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

অভিযোগে জানা গেছে, নির্বাচন উপলক্ষে অর্থনীতিবিদ রেজা কিবরিয়ার ছবিসহ একটি বিতর্কিত পোস্টার ও লিফলেট কে বা কারা ছেপে তাঁর নির্বাচনী এলাকায় ভোটারদের মধ্যে বিলি করেছেন। পোস্টার গায়ে লেখা, ‘হবিগঞ্জ-১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসন থেকে মনোনীত বিএনপি জোট সরকারের হাতে নিহত সাবেক অর্থমন্ত্রী মরহুম শাহ এ এম এস কিবরিয়া সাহেবের সুযোগ্য সন্তান ড. রেজা কিবরিয়া-কে ধানের শীষ মার্কায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করুন।’ এ ধরনের পোস্টার পেয়ে এলাকায় ভোটারদের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। পাশাপাশি একই পোস্টার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকেও ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে রেজা কিবরিয়া জানান, একটি ভুয়া পোস্টার ছড়ানো হচ্ছে তাঁকে নির্বাচনী মাঠে বিতর্কিত করার জন্য। তিনি এলাকাবাসীকে এ পোস্টারে বিভ্রান্ত না হয়ে সতর্ক থাকতে বলেন। পাশাপাশি তিনি বিষয়টি তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানান।

এর আগে গতকাল রোববার রেজা কিবরিয়া নির্বাচনী এলাকা ছেড়ে ঢাকায় চলে যান। নিরাপত্তাহীনতা বোধ করায় নির্বাচনী এলাকার গ্রামের বাড়ি ছেড়ে ঢাকায় চলে গেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

নবীগঞ্জ ও বাহুবল উপজেলা নিয়ে হবিগঞ্জ-১ আসন। অর্থনীতিবিদ রেজা কিবরিয়া ২০০৫ সালের ২৭ জানুয়ারি হবিগঞ্জে গ্রেনেড হামলায় নিহত সাবেক অর্থমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের নেতা শাহ এ এম এস কিবরিয়ার ছেলে। রেজা কিবরিয়া গত ১৮ নভেম্বর গণফোরামে যোগ দেন। একাদশ সংসদ নির্বাচনে তিনি হবিগঞ্জ-১ আসনে ঐক্যফ্রন্ট থেকে মনোনয়ন পান।

মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের সময় একটি ক্রেডিট কার্ডের বিপরীতে সাড়ে ৫ হাজার টাকা বকেয়া থাকায় ঋণখেলাপি দেখিয়ে রেজা কিবরিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিল করেছিলেন জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা। তিনি নির্বাচন কমিশনে আপিল করে প্রার্থিতা ফিরে পান। ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী হলেও একই রিটার্নিং কর্মকর্তা প্রতীক বরাদ্দের দিন রেজা কিবরিয়াকে ধানের শীষ প্রতীক বরাদ্দ দেননি। অবশ্য এক দিন পর ধানের শীষ প্রতীক বরাদ্দ পান তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত