প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রাজনীতিতে জামায়াতের প্রভাব বাড়েনি, বেড়েছে ধর্মের প্রভাব : শাহরিয়ার কবির

জুয়েল খান : একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কিমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির বলেছেন, জামায়াত বিএনপির কাছে আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের কোনো প্রত্যাশা নেই। তারা আবার ক্ষমতায় আসলে বাংলাদেশকে জিয়াউল হকের পাকিস্তান বানাবে। রোববার রাতে নিউজ২৪ এর এক আলোচনায় তিরি একথা বলেন।

শাহরিয়ার কবির বলেন, ৭৫ এর পর থেকে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি বেশিদিন রাষ্ট্রক্ষমতায় ছিলোনা, বেশিদিন দেশ শাষণ করেছে মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষের শক্তি। পৃথিবীর ইতিহাসে এমন কোনো দেশ নেই যেখানে স্বাধীনতার বিপক্ষের শক্তি বলে কোনো শক্তি আছে। শুধুমাত্র বাংলাদেশেই স্বাধীনতার বিপক্ষের শক্তি আছে এবং আর্থিকভাবে তার খুবই শক্তিশালী।

তিনি বলেন, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জেনারেল জিয়াউর রহমান বীরউত্তম, যার বীরউত্তম খেতার বঙ্গবন্ধু দিয়েছিলেন। তিনি ক্ষমতায় এসে সংবিধান থেকে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস-চেতনাকে মুছে ফেললেন। ধর্মনিরপেক্ষতাকে মুছে ফেললেন, বাঙালি জাতীয়তাবাদ থাকবে না, সমাজতন্ত্র থাকবে না। সবথেকে বড় ক্ষতি যেটা করলেন সেটা হলো ধর্মের নামে রাজনীতি করার সুযোগ করে দিলেন। ৭২‘ সালের সংবিধানে ধর্মভিত্তিক রাজনীতি করার সুযোগ ছিলোনা।

তিনি আরো বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার কিন্তু এমনি এমনি হয়নি এর জন্য আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের ১৯৯২ সাল থেকে রাস্তায় থাকতে হয়েছে, সংগ্রাম করতে হয়েছে। সর্বপরি মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার কারণেই সর্বশেষ এই বিচার বাংলার মানুষ দেখতে পেয়েছে প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণে। সর্বশেষ গণজাগরণ মঞ্চের উত্থানের জন্যও আমাদের রাজপথে থাকতে হয়েছে। আমরা মুক্তিযোদ্ধারা এখনো রাস্তায় আছি থাকবো এবং সরকারকে বলেছি মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বাস্তবায়নের জন্য তাদের নির্বাচনী ইশতেহারে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য অঙ্গীকার দেখতে চাই।

তিনি জানান, শীর্ষস্থানীয় যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ব্যক্তিহিসাবে শেষ হয়েছে এখন সংগঠন হিসাবে জামায়াতে ইসলামীর-রাজাকার- আলবদর এবং পাকিস্তানী হাইকমান্ডের বিচার করতে হবে। আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে সেই আবেদন করেছি। নির্বাচনী ইশতেহারে আমরা এটা দেখতে চাই। আগামীতে যারাই সরকারে আসবেনা তারাই এটা অব্যাহত রাখবেন। জামায়াতে ইসলামীর জনপ্রিয়তা তলানীতে এসে পেুৗঁছেছে। এখন শুধু তাদের সন্ত্রাসের সক্ষমতা আছে এবং সাধারণ মানুষ জঙ্গিপনা পছন্দ করে না তাই তারা জামায়াতকে প্রত্যাখান করেছে। বাংলাদেশের রাজনীতিতে জামায়াতে ইসলামী প্রভাব বাড়েনি বেড়েছে ধর্মের প্রভাব।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত