প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রাজধানীতে পুলিশের হাতে আটকের পর আসামির মৃত্যু

সুজন কৈরী : রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে পুলিশের হাতে আটকের পর জামাল উদ্দিন রিপন নামের ৪৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।

পুলিশ বলছে, ওই ব্যক্তি একাধিক মামলার আসামি। আটকের পর ‘বুকে ব্যথা’ অনুভব করায় হাসপাতালে নেওয়া হলে তার মৃত্যু হয়।

যাত্রাবাড়ী থানার ওসি কাজী ওয়াজেদ আলী বলেন, শনিবার রাতে যাত্রাবাড়ী কাজলা শেখদিবাজার এলাকা থেকে পুলিশ রিপনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। রিপন যাত্রাবাড়ীর থানায় দায়ের করা মামলার আসামি ছিলেন। রিপন আগে থেকেই উচ্চ রক্তচাপসহ নানা রোগে আক্রান্ত ছিলেন। ধারণা করা হচ্ছে রিপন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

ডিএমপির ডেমরা জোনের সিনিয়র সহকারী কমিশনার ইফতেখায়রুল ইসলাম বলেন, শনিবার রাতে যাত্রাবাড়ীর কাজলা শেখদিবাজার এলাকা থেকে পুলিশ রিপনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। পেছনে পেছনে তার দুই ছেলেও থানায় আসে। থানায় আসার পর রিপন বুকে ব্যথা অনুভবের কথা বলেন। পরে তাকে প্রথমে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসা শেষে শরীর ভাল লাগার কথা বললে রিপনকে আবারো থানায় নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়। কিন্তু রিপন এ সময় আবারো তার বুকে ব্যথার কথা বলেন। পরে চিকিৎসকদের পরামর্শে রিপনকে রাতে সোয়া ১২টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এসি ইফতেখায়রুল বলেন, রিপন উচ্চরক্তচাপসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত ছিলেন। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে। রিপনের বিরুদ্ধে যাত্রাবাড়ী থানায় পাঁচটি মামলা রয়েছে। তিনি ক্যাবল টেলিভিশনের ব্যবসায় জড়িত ছিলেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত