প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘নির্বাচনে জয়ী হয়ে অসাম্প্রদায়িক রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করতে হবে’

রফিক আহমেদ : ইসলামী বিভিন্ন জোট ও দলের শীর্ষ নেতারা বলেছেন, একাদশ জাতীয় নির্বাচনে জয়ী হয়ে সাম্প্রদায়িক চক্রান্ত প্রতিহত করে দেশে অসাম্প্রদায়িক রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করতে হবে। আর তাতে ব্যর্থ হলে এ দেশ ক্রমান্বয়ে অন্ধকারের দিকে ধাবিত হবে। তখন আর কারো কিছু করার থাকবে না। রোববার বিভিন্ন জোট ও দলের নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা এ কথা বলেন।

ইসলামী ঐক্যজোটের সভাপতি আবদুল লতিফ নেজামী বলেন, সারাদেশ এখন নির্বাচনী জ্বরে আক্রান্ত। দেশের সবার নজর এখন আগামী ৩০ ডিসেম্ভর নির্বাচনের দিকে। এই নির্বাচনে জয়- পরাজয়ের মধ্য দিয়ে দেশে নতুন করে রাজনৈতিক মেরুকরণ শুরু হবে। একাদশ জাতীয় নির্বাচনে সারাদেশে আমাদের ইসলামী ঐক্যজোটের ২৫জন প্রার্থী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছেন। আমরা জোটের প্রার্থীদের জন্য ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থণা করছি। ইসলামিক ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স এর মহাসচিব এম এ আউয়াল বলেন, আমাদের জোটের ১০জন প্রার্থী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছেন। প্রার্থীরা এখন ভোটারদের কাছে ভোট চাচ্ছেন।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদশ এর রাজনৈতিক উপদেষ্টা আশরাফ আলী আকন বলেন, আমাদের দল এবার জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২৯৮ আসনে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছে। তবে, দলের আমীর মুফতি সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম নির্বাচন করছেন না। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ সারাদেশে ৩’শ আসনে দলের যোগ্য প্রার্থীদের মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। তারা এখন নির্বাচনী এলাকায় ভোট প্রার্থনা করছেন। এই সরকারের অধীনে অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হওয়ার সম্ভাবনা নেই। এই নির্বাচন কমিশন- ইসি ও সরকারকে কোনোভাবেই বিশ^াস করা যায় না। সরকার ও ইসির ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ। আমরা নির্বাচন ও নির্বাচনের ফলাফল দেখে পরবর্তী পদক্ষেপ নেবো।

বাংলাদেশ আওয়ামী ওয়ামালীগের সভাপতি কাজী মাওলানা আবুল হাসান শেখ শরীয়তপুরী বলেন, আসন্ন নির্বাচনে বিএনপি- ঐক্যফ্রন্টকে বয়কটের মাধ্যমে সাম্প্রদায়িক চক্রান্ত প্রতিহত করতে হবে। তিনি অসাম্প্রদায়িক চেতনা বাস্তবায়নে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার আহবান জানান। তিনি বিগত নির্বাচনে আওয়ামী লীগ পোষ্টারের শীর্ষে আল্লাহ সর্ব শক্তিমান ছাপিয়ে এবং কোরআন সুন্নাহ বিরোধী কোন পাশ না করার ঘোষণা দিয়ে তা বাস্তবাযন করেছে। এবারও ইনশাল্লাহ নির্বাচনে ইশতেহারে একইভাবে সম্মান জানিয়ে আল্লাহ পাকের প্রতি পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস স্থাপন করা হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত