প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দেশে শান্তি ফেরাতে ইসলামি বার্তার পাশাপাশি চলছে নির্বাচনী প্রচার

সাজিয়া আক্তার : চরমোনাই-এর পীরের নেতৃত্বে এবার সারা দেশের সবকটি আসনেই নির্বাচন করছে বাংলাদেশ ইসলামী আন্দোলন। দলের নেতারা বলছেন, কোরানের ভিত্তিতে ইসলামি অনুশাসনের মাধ্যমে রাষ্ট্র ও সরকার পরিচালনাই হবে তাদের লক্ষ্য। কীভাবে প্রচারণা চালাচ্ছে এ নিয়ে বিবিসি বাংলায় একটি প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে।

ইসলামী আন্দোলনের মহাসচিব ইউনুস আহমেদ বলেছেন, আমরা মনে করি মানুষ শান্তি চায়, মুক্তি এবং নিরাপত্তা চায়। সমাজের কোথায় কোথায় অশান্তি আছে আমরা তা খোঁজে বের করছি এবং দেখছি। আমরা দেখছি সমাজের সর্বস্তরে মাদক, সন্ত্রাস, দুর্নীতি ইত্যাদির মাধ্যমে দেশটা সয়লাব হয়ে গেছে। আমরা অতিসত্বরই ইশতিহার ঘোষণা করবো। আমরা চেষ্টা করছি দুর্নীতিবাজ এবং মাদক সেবনকারীসহ নানা অপকর্মের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে।

তিনি আরো বলেছেন, সর্বস্তরের মানুষ যাতে ভালোভাবে ও সুস্থ স্বাভাবিকভাবে জীবন-যাপন করতে পারেÑএর জন্য আমাদের চরমোনাই পীর বিভিন্ন গ্রামাঞ্চল থেকে শুরু করে শহরাঞ্চলে ওয়াজ-মাহফিল, সভা, মজলিসের মাধ্যমে মানুষের মধ্যে আত্মিক বার্তা দিয়ে আসছেন। জামায়াতের একটি জনশক্তি রয়েছে, তার মধ্যে যারা আলেম উলামা ও বিজ্ঞজন তারা সারা বছর বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন মজলিসে মানুষজনকে ওয়াজ মাহফিলের মাধ্যমে এমনভাবে একটি জিন্দেগি গঠনের চেষ্টা করছেন।

ইউনুস আহমেদ বলেছেন, ইসলামের অনুশাসন মেনে নারীরা যাতে তাদের নিজের অধিকার খুঁজে পাবে তার জন্য নানা বিষয়ে সমাজের বিভিন্ন মাধ্যমে ইসলামী বার্তা প্রচার করা হচ্ছে। বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ইসলামী বার্তা আগের থেকে অনেক বেশি প্রচার করা হচ্ছে। নির্বাচনী যে অনুষ্ঠানগুলো হয়, পথসভা, উঠান বৈঠক, সেকারণে ইসলামে ফাইদা লাভ ও উপকারিতা এটা আমরা বর্ণনা দিচ্ছি। এতে করে পুরুষের থেকে নারীদের ইসলামের বিভিন্ন বিষয়ে বেশি আগ্রহ হচ্ছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত