প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নির্বাচন কমিশন পক্ষপাতমূলক আচরণ করছে : হিউম্যান রাইটস ওয়াচ

উল্লাস মূর্তজা : হিউম্যান রাইটস ওয়াচ এর দক্ষিণ এশিয়ার পরিচালক মিনাক্ষি গাঙ্গুলী বলেছেন, বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশন এই নির্বাচনকে ঘিরে পক্ষপাতমূলক আচরণ করছে। নির্বাচনী প্রচারণায় বিরোধীদলের উপর নজরদারি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করা হচ্ছে। এবং এধরনের সমস্যা মোকাবিলায় যথেষ্ট প্রস্তুতি নির্বাচন কমিশনের নেই। শুক্রবার ‘বিবিসি’তে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, সরকার যখন ক্ষমতায় থেকে নির্বাচন করে তখন দেশের যেকোনো প্রতিষ্ঠানকে নিরপেক্ষ ও স্বাধীনভাবে কাজ করতে হয়। নির্বাচন কমিশন একদলের লোকদেরই শুধু যোগ্য বিবেচিত করছেন এবং অন্যদলের লোকদের অযোগ্য। শুধুমাত্র একদলের লোকদেরকেই গ্রেফতার করা হচ্ছে। তাই নির্বাচনের ‘লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড’ যেটা বোঝায় আমরা কিন্তু সেটা দেখছি না। তাই এমন একটা নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষক থাকাটা খুবই জরুরি।

হিউম্যান রাইট্স ওয়াচের অভিযোগের উত্তরে নির্বাচন কমিশন সচিব হেলাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, এই নির্বাচনের অধিকাংশ প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন ফৌজদারী মামলা রয়েছে। যাদেরকে গ্রেফতার করা হচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে, যাদের অধিকাংশ এতদিন পলাতক অবস্থায় ছিলো এখন নির্বাচনকে সামনে রেখে তারা আবার প্রকাশ্যে চলে এসেছে। যাদের বিরুদ্ধে ফৌজদারী মামলা রয়েছে, তারা যদি মাঠে আসে তাহলে পুলিশতো তাদের দায়িত্ব পালন করবেই।

তিনি বলেন, ইতিমধ্যে নির্বাচন কমিশন নির্দেশনা দিয়েছে, বিনা পরোয়ানায় কাউকে যেনো গ্রেফতার করা না হয়। কোনো সাধারণ মানুষকে যাতে অযথা হয়রানি না করা হয়।

এবারের নির্বাচনে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পর্যবেক্ষক পাঠাচ্ছে না কারণ, বাংলাদেশে এখন গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া কার্যকর রয়েছে। এরপরও নির্বাচন পর্যবেক্ষণের জন্য দেশের ১১৮টি প্রতিষ্ঠানকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এছাড়াও কমনওয়েলথ, ওআইসি এবং সার্কভুক্ত দেশগুলোকে পর্যবেক্ষক পাঠাপনোর জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। তাছাড়া বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্্রদূতরা নির্বাচন দেখভাল করার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেছে বলে জানান হেলাল উদ্দিন আহমেদ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত