প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৩০ ডিসেম্বর গণজাগরণ হবে : আ স ম আব্দুর রব

মিলটন খন্দকার : জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম শীর্ষ নেতা ও জেএসডি’র সভাপতি আ স ম আব্দুর রব বলেছেন, ৩০ ডিসেম্বর গণজাগরণ হবে। ৭০’এর নির্বাচনে যেমন ভোটের বিপ্লব হয়েছিল এবার ২০১৮ সালের নির্বাচনে ভোটের বিপ্লবে ধানের শীষের বিজয় হবে।

শনিবার বিকালে টঙ্গীতে ধানের শীষের প্রার্থী সালাহ উদ্দিন সরকারের নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

রব আরো বলেন, ১৯ মার্চ রাত থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত হিন্দু মুসলমান মা বোনদের ওপর যে কমান্ডো বাহিনী অত্যাচার করেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে গ্রেফতার করে নিয়েছে সেই বাহিনীর কমান্ডারের হাতে শেখ হাসিনা নৌকা তুলে দিয়েছে।

জনসভায় মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, এবার আমরা যুদ্ধে নেমেছি। এ যুদ্ধে তাদের কাছে অস্ত্র আছে আমাদের কাছে নেই। মানুষ আমাদের পক্ষে আছে। ওদের পক্ষে নেই। এখন ভোটের লড়াই শুরু হয়ে গেছে। তিনি বলেন, নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড দিলে তারা লেভেল হয়ে যাবে। এ ভয়ে তারা নির্বাচনে লেভেল ফিল্ড দিচ্ছে না। যতই অত্যাচার নির্যাতন করুক আমরা এখন জবাব দিব না। ৩০ তারিখের নির্বাচনে এমন জবাব দিব যে তারা মুখ দিয়ে আওয়াজ করতে পারবে না। তিনি বলেন, যতই অত্যাচার নির্যাতন করুননা কেন আপনারা ঘাবড়াবেন না। এবার লড়াই হবে ভোটের ও ব্যালটের।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, ৩০ ডিসেম্বর বাংলাদেশের অস্তিত্ব রক্ষার নির্বাচন, দুঃশাসনের অবসান, ব্যাংক লুট, দুর্নীতি ও অত্যাচার নির্যাতনের বিরুদ্ধে এবং খালেদা জিয়ার মুক্তির নির্বাচন। মানুষের অধিকার রক্ষার নির্বাচন।

ক্ষমতাসীনরা হারতে চায়না তারা ক্ষমতা ছাড়তে ভয় পায়। যারা অত্যাচারী হয় আল্লাহ তাদের পছন্দ করে না। তারা পরাজিত হবে। তিনি বলেন, দেশের স্বার্থে, জনগণের স্বার্থে নেত্রীর মুক্তির স্বার্থে মাটি কামড় দিয়ে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত নেতাকর্মীদের মাঠে থাকতে হবে।

ডা. জাফর উল্লাহ জনসভায় উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনাদের জয় হয়ে গেছে, ২ জানুয়ারি ন্যায় বিচারের মধ্যেমে খালেদা জিয়া কারাগার থেকে মুক্তি পাবেন।

গাজীপুর মহানগর বিএনপির সভাপতি হাসান উদ্দিন সরকারের সভাপতিত্বে জনসভায় আরো বক্তৃতা করেন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, নাগরিক ঐকের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরউল্লাহ চৌধুরী, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান, ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, গাজীপুর মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. সোহরাব উদ্দিন প্রমুখ।

সম্পাদনা : মুরাদ হাসান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত