প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ময়মনসিংহ-৭
রওশন এরশাদ সরে যাওয়ায় পাল্টে গেছে ভোটের সমীকরণ

হ্যাপি আক্তার : ময়মনসিংহ-৭ আসন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন রওশন এরশাদ। এতে পালটে গেছে আনটির নির্বাচনের হিসাব-নিকাশ। বিএনপি বলছে, তাদের জনপ্রিয়তাই মাঠ ছাড়তে বাধ্য হয়েছে জাতীয় পার্টি। আর আওয়ামী লীগ প্রার্থী এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে হাঁটতে চায় বিজয়ের পথে। সূত্র : যমুনা টেলিভিশন।

প্রতীক বরাদ্দের পর প্রচারণায় ব্যস্ত ময়মনসিংহ-৭ ত্রিশাল আসনের সব প্রার্থীরা। রওশন এরশাদ এই আসনে লাঙল প্রতীক নেয়ার পর পালটে যায় হিসাব-নিকাশ। তবে জেলা প্রশাসনকে চিঠি দিয়ে ত্রিশাল থেকে নির্বাচন না করার সিদ্ধান্ত জানান তিনি। এই নিয়ে ভোটারদের মধ্যে দেখা দিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।

ভোটাররা বলছেন, আমাদের নেতা যে কে, সেটা আমরা নির্ধারণ করতে পারছি না। কাকে ভোট দেবো। ত্রিশাল গত ১৭ বছর ধরে উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত। এলাকার উন্নয়নে যে দল কাজ করবে তাদেরকেই নির্বাচিত করবো।

বিএনপির প্রার্থী বলছেন, ত্রিশালে নিজের জনপ্রিয়তা ও অবস্থান দেখে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন রওশন এরশাদ।

ময়মনসিংহ-৭ আসনে বিএনপির প্রার্থী সাহাবুবুর রহমান লিটন বলেছেন, যে জোয়ার তৈরি হয়েছে, এই জোয়ারে সকলের কাছে একটি বার্তা চলে গেছে। ত্রিশালে ধানের শীষ জয়লাভ করবে।

অপর দিকে জাতীয় পার্টি সরে যাওয়ায় সুবিধা জনক অবস্থানে আওয়ামী লীগ প্রার্থী। অভ্যন্তরীণ কোন্দল মিটিয়ে বিজয় ছিনিয়ে আনতে মরিয়া তারা।
ময়মনসিংহ-৭ আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থী রুহুল আমীন মাদানী বলেছেন, আওয়ামী লীগের অন্যতম শরিক দল জাতীয় পার্টি। মহাজোট থেকে দাঁড়ালে জাতীয় পার্টি ত্রিশাল থেকে ভোট পাবে না। যার কারণে তারা সরে দাঁড়ায়। তার পরিপ্রেক্ষিতে আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা আমাকে মনোনয়ন দিয়েছেন।

এদিকে জেলা রির্টানিং কর্মকর্তা দপ্তর জানিয়েছে এখন প্রত্যাহারের সময় নেই। তাই ত্রিশালে ব্যালটে থাকছে নাঙল প্রতীক এবং রওশন এরশাদ বৈধ প্রার্থী।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত