প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় বিশ্বাসীরা সাংবাদিককে ‘চিনে রাখব’ বলতে পারেন না’

সাব্বির আহমেদ : জামায়াতে ইসলামী নিয়ে প্রশ্ন করায় সাংবাদিকদের সঙ্গে মেজাজ হারান জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন।  ধমক দিয়ে ওই সাংবাদিককে ‘চিনে রাখবে’ মন্তব্য করেন তিনি।

শুক্রবার বিষয়টি নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকী বলেন, যারা গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী, তারা সাংবাদিকের সঙ্গে এমন রূঢ় আচরণ করতে পারেন না। এমন ব্যবহার মোটেও সমীচীন নয়।

সাংবাদিকতার এই শিক্ষকের মতে, সাংবাদিকের যেমন প্রশ্ন করার অধিকার আছে, তেমননি রাজনীতিবীদেরও প্রশ্নের জবাব না দেওয়ারও অধিকার আছে।

তিনি বলেন, বুদ্ধিজীবী দিবসে সঙ্গত কারণেই সাংবাদিকদের প্রশ্নটি যথার্থ ছিল। জামায়াত ও ঐক্যফ্রন্টের অবস্থান নিয়ে সাংবাদিকের মনে সন্দেহ থাকতে পারে। কারণ, বুদ্ধিজীবী হত্যায় জামায়াতে ইসলামী ও তাদের দোসর আলবদরের হাত ছিল।

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে মিরপুরে বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ড. কামাল।

এ সময় জামায়াতে ইসলামীর প্রসঙ্গে ড. কমাল হোসেনের অবস্থান জানতে চাইলে তিনি পাল্টা প্রশ্ন করেন, ‘কত পয়সা পেয়েছো, এসব প্রশ্ন করতে? চিনে রাখবো। কত পয়সা দিয়েছে? চুপ করো, খামোশ।শহীদ মিনারের এসে শহীদদের অশ্রদ্ধা করো। শহীদদের কথা চিন্তা করো।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত