প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নির্বাচনী সহিংসতা অব্যাহত

বাংলাদেশ প্রতিদিন : প্রতিপক্ষের প্রার্থীর ওপর হামলা, প্রচার মাইকে আগুন দেওয়া, নির্বাচনী কার্যালয় ভাঙচুর, ককটেল বিস্ফোরণ, গ্রেফতারের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে গণসংযোগের আরও একটি দিন। পাবনার সাঁথিয়া বাজারে পাবনা-১ আসনের ঐক্যফ্রন্টের ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী অধ্যাপক আবু সাইয়িদের নির্বাচনী বহরে হামলা করেছে দুর্বৃত্তরা। গাজীপুরে বিএনপি প্রার্থী ফজলুল হক মিলনকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। রাজধানীতে গণসংহতি আন্দোলনের সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকির নির্বাচনী প্রচার মিছিলে হামলা হয়েছে। এ ছাড়া নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে নির্বাচনী আইনশৃঙ্খলা সভায় বিএনপির প্রার্থী আজহারুল ইসলাম মান্নানের ওপর হামলা হয়েছে। যশোরে সময় টিভির ক্যামেরা ভাঙচুর ও চার সাংবাদিক লাঞ্ছিত করেছে আওয়ামী লীগের কর্মীরা। বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে নৌকা মার্কার প্রচার মাইকে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে। এ ছাড়া সারা দেশে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত হয়েছেন শতাধিক ব্যক্তি। গ্রেফতার করা হয়েছে ৫০ জনকে। আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর—

পাবনা : পাবনার সাঁথিয়া বাজারে পাবনা-১ আসনের ঐক্যফ্রন্টের ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী অধ্যাপক আবু সাইয়িদের নির্বাচনী বহরে হামলা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল বেলা সাড়ে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় অধ্যাপক আবু সাইয়িদের গাড়িসহ দুটি গাড়ি ভাঙচুর ও ছয়-সাতজন আহত হন। ঘটনার পরপরই আবু সাইয়িদ সাঁথিয়া থানায় গিয়ে অভিযোগ করেন। অধ্যাপক আবু সাইয়িদ বলেন, ‘আমি ধোপাদহ ইউনিয়নে নির্বাচনী প্রচারণার জন্য যচ্ছিলাম। পথে সাঁথিয়া বাজারের পাশে ব্রিজের ওপর পৌঁছলে শামসুল হক টুকুর সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা অতর্কিতে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। এ সময় আমিসহ আমার ১০ জন নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন।’ হামলাকারীরা তিনটি মোটরসাইকেল নিয়ে গেছে বলেও জানান তিনি।

গাজীপুর : গাজীপুর-৫ আসনের বিএনপি প্রার্থী জেলা বিএনপির সভাপতি ফজলুল হক মিলনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জেলার পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার জানান, মিলনের বিরুদ্ধে ঢাকার বিভিন্ন থানার সাতটি মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে। সেই পরোয়ানার ভিত্তিতে গতকাল বেলা আড়াইটার দিকে তার গ্রামের বাড়ি কালীগঞ্জের বরতুল থেকে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। মিলন বিএনপির ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক। তার আইনজীবী পারভিন আক্তার ও স্ত্রী শম্পা হক সাংবাদিকদের জানান, মিলনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগে ৩৩টি মামলা রয়েছে। সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে নির্বাচন উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা সভা চলাকালে রনি বিল্লাহ নামে এক সন্ত্রাসী বিএনপির প্রার্থী আজহারুল ইসলাম মান্নান ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে তার জামা ছিঁড়ে ফেলে। হামলায় আজহারুল ইসলাম আহত হন। বগুড়া : বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত মহাজোট প্রার্থীর নৌকা মার্কার প্রচার মাইক পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় থানায় অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে মামলা হয়েছে। যশোর : যশোর-৩ (সদর) আসন এলাকায় বিএনপি প্রার্থীর পৃথক দুটি সমাবেশস্থলে প্রতিপক্ষের হামলায় সাংবাদিকসহ অন্তত সাতজন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে পাঁচজনকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

নেত্রকোনা : নেত্রকোনা-৩ (কেন্দুয়া-আটপাড়া) আসনের নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণাকে কেন্দ্র করে যুবলীগের মিছিলে পেট্রলবোমা হামলা হয়েছে। এ ছাড়া বিএনপি প্রার্থীর বাড়িতে হামলা ও গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ, স্থানীয় ও দলীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে নৌকা প্রতীকের পক্ষে যুবলীগের মিছিলে আটপাড়া উপজেলার ব্রুজের বাজার ব্রিজের কাছে পেট্রলবোমা হামলার ঘটনা ঘটে। এতে যুবলীগ সভাপতিসহ ছয়জন আহত হয়েছেন বলে আটপাড়া থানার ওসি অভিরঞ্জন দেব জানিয়েছেন।

খুলনা : বিএনপির নির্বাচনী কাজে বাধা ও নেতা-কর্মীর ওপর হামলার অভিযোগ করেছেন খুলনা-৪ আসনে বিএনপির প্রার্থী আজিজুল বারী হেলাল। গতকাল খুলনা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব অভিযোগ করেন। বরিশাল : বরিশাল-১ আসনের গৌরনদীতে ধানের শীষের প্রচারণায় অংশ নেওয়ার অপরাধে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের ৯ নেতার বাড়ি ভাঙচুর এবং নির্বাচনের আগে এলাকা ত্যাগ না করলে হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ক্ষমতাসীনদের বিরুদ্ধে। গৌরনদী উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক বদিউজ্জামান মিন্টু জানান, বুধবার ধানের শীষের প্রার্থী প্রথমবারের মতো নির্বাচনী এলাকায় গণসংযোগ করেন। খাগড়াছড়ি : সদরের শালবন এলাকায় বিএনপি প্রার্থী শহীদুল ইসলাম ভূঁইয়ার নির্বাচনী প্রচারণার গাড়িতে হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল বেলা আড়াইটায় হরিনাথপাড়া এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণার গাড়িতে হামলা চালিয়ে পাঁচ নেতা-কর্মীকে মারধর এবং জিপগাড়ির কাচ ও মাইক ভাঙচুর করা হয়।

লক্ষ্মীপুর : লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনের করপাড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ ও ঐক্যফ্রন্টের (এলডিপি) প্রার্থীর নির্বাচনী কার্যালয়ে পাল্টাপাল্টি হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে। গতকাল দুপুরে রামগঞ্জের পূর্ব করপাড়া গ্রামে ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী শাহাদাত হোসেন সেলিমের বাড়ির সামনে তার নির্বাচনী ক্যাম্পে হামলা চালানো হয়। এ সময় চেয়ার-টেবিল ও একটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর এবং পাঁচজন নেতা-কর্মীকে মারধর করা হয়।

ঝালকাঠি : ঝালকাঠি-২ আসনের বিএনপি প্রার্থী জীবা আমিন খানের গাড়ি ভাঙচুর করেছে একদল যুবক। গতকাল সকাল ১০টায় বিএনপির প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ের সামনে পার্ক করা তার গাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করা হয়। আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) : নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে আওয়ামী লীগ-বিএনপির পৃথক সংঘর্ষে ১৫ জন আহত হয়েছে। গতকাল উপজেলার সাতগ্রাম ইউনিয়নের পুরিন্দা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে বিএনপির প্রার্থী নজরুল ইসলাম আজাদ দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় বের হন। একই সময়ে আওয়ামী লীগের লোকজনও নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন। এতে উভয় পক্ষে সংঘর্ষ বেধে যায়। ব্রাহ্মণবাড়িয়া : সদর উপজেলার বুধল ইউনিয়নের জঙ্গলীসার গ্রামে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ (সদর) আসনের আওয়ামী লীগের নির্বাচনী কার্যালয়ে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার দিবাগত রাত প্রায় সাড়ে ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। সিরাজগঞ্জ : সিরাজগঞ্জ-১ (কাজীপুর) আসনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী আল-আমিন সিরাজীর ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে দলের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। আহত অবস্থায় তাকে সিরাজগঞ্জ নর্থবেঙ্গল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদকসহ ৯ নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার দিবাগত রাতে নিজ নিজ বাড়ি থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এর আগে উপজেলার দুটি গ্রামে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটায় প্রতিপক্ষের লোকজন। বাগেরহাট : বাগেরগহাট জেলা গোয়েন্দা পুলিশ বুধবার রাতে শরণখোলা থেকে দুই জামায়াত নেতাকে গ্রেফতার করেছে। তাদের কাছ থেকে বেশ কিছু সাংগঠনিক ও জিহাদি বই উদ্ধার করা হয়েছে বলে অভিযোগ পুলিশের।

সখীপুর (টাঙ্গাইল) : টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্যসচিব অধ্যাপক জুলফিকার শামীমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার রাত ১১টার দিকে পৌর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সখীপুর থানা পুলিশ। ব্রাহ্মণবাড়িয়া : জেলার বিজয়নগর উপজেলায় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা বিএনপির গণসংযোগের প্যান্ডেল ভাঙচুর করে কাপড়ে আগুন ধরিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বেলা পৌনে ৩টার দিকে উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত