প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পরিবতর্ন চাইলে ধানের শীষে ভোট দিন

যায়যায়দিন : বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বতর্মান সরকারের পরিবতর্ন না হলে দেশে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা থাকবে না। সরকারের পরিবতর্ন আনতে চাইলে ধানের শীষে ভোট দিতে হবে। বৃহস্পতিবার নিজ নিবার্চনী এলাকার রাজাগাঁও ইউনিয়নের চুয়ামনি বাজারে পথসভায় তিনি একথা বলেন। এর আগে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সালন্দর ইউনিয়নের বরুনাগাঁও, চেরাডাঙ্গী ও বটতলিতে মিজার্ ফখরুল নিবার্চনী গণসংযোগ করেন।

তিনি এদিন রাজাগাঁও ইউনিয়নের বড়দেশ্বরী, হোসেন চৌধুরী পাড়া, রহিমানপুর ও জামালপুর ইউনিয়নে গণসংযোগে ভাষণ দেন। মিজার্ ফখরুল বলেন, ‘আওয়ামী লীগ আবারও ক্ষমতায় এলে কোনো জবাবদিহিতা থাকবে না। একদলীয় শাসন, স্বৈরাচারী শাসন আরও পোক্ত হবে। এই সরকারের পরিবতর্ন ঘটাতেই আমরা সবগুলো দল এক হয়েছি। ড. কামাল হোসেনকে নিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠন করা হয়েছে। এই জোটের একটিই উদ্দেশ্য, গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা। এজন্য আগামী ৩০ ডিসেম্বর ধানের শীষে ভোট দিয়ে গণতন্ত্রের বিজয় আনতে হবে।’

তিনি বলেন, ধানের শীষে ভোট দিলে দেশের যেসব নেতাকমীর্ কারাগারে রয়েছেন, তাদের মুক্ত করতে পারব। মামলা হামলা থেকে সাধারণ মানুষকে মুক্ত করতে পারব।’ বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আমরা নিবার্চনের শুরু থেকে ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতা দিয়ে সেনাবাহিনী চেয়েছিলাম, যাতে তারা শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষা করতে পারে। কিন্তু আমরা শুনছি, স্ট্রাইকিং ফোসর্ হিসেবে তাদের মোতায়েন রাখা হবে। ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতা না দিলে এভাবে সেনা মোতায়েনে কোনো কাজ হবে না।’

তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ বিনাভোটে ৫ বছর ক্ষমতায় থেকে জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। কাজেই তারা নিবার্চনে যে কোনো মূল্যে জয়ী হতে ভোট চুরি করবে। ভোট চুরি করতে না পারলে আওয়ামী লীগ কোনো দিন ক্ষমতায় আসতে পারবে না।’ মিজার্ ফখরুল প্রতিশ্রæতি দেন, বিএনপি ক্ষমতায় আসতে পারলে একজন শিক্ষিত যুবক যতদিন চাকরি পাবে না, ততদিন পযর্ন্ত বেকারভাতা পাবে। অন্য যুবকদেরও বেকারভাতা দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত