প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দীর্ঘদিন অযত্নে থাকার পর আধুনিকায়ন হচ্ছে এফডিসির মসজিদটি

মহিব আল হাসান : বিএফডিসির ঝর্ণা স্পটের পাশে অবস্থিত এফডিসির একমাত্র মসজিদটি নতুনভাবে নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। দীর্ঘদিন পর আধুনিক মানের করা হচ্ছে অযত্নে পরে থাকা এফডিসির মসজিদটি। নতুন ডিজাইনে মসজিদটি সুন্দরভাবে করার জন্য সহযোগিতা করছেন থার্মেক্স গ্রুপের এবং মজিদ মোল্লা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আবদুল কাদির মোল্লা। প্রায় ২ কোটি ৯ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মাণ হচ্ছে মসজিদটি।

বুধবার বিকেল মসজিদটির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়। ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন আবদুল কাদির মোল্লা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন চলচ্চিত্র অভিনেতা ফারুক, শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান, চিত্রনায়ক বাপ্পী, সাইমন জয় চৌধুরী, সনি রহমান, পরিচালক মুশফিকুর রহমান গুলজার, বদিউল আলম খোকন এবং এফডিসির এমডি আমির হোসেনসহ আরও অনেকে।

এসময় চিত্রনায়ক ফারুক বলেন, ‘এফডিসির বাহিরের মানুষরা মনে করেন চলচ্চিত্রে যারা কাজ করেন তারা ধর্মভীরু নন। এটা পুরোপুরি ভুল ধারণা। চলচ্চিত্রের মানুষরাই আল্লাহকে বেশি ডাকে। যিনি মসজিদ তৈরি করে দিলেন তার কাছে আমরা ঋণি। যদিও এ ঋণ শোধ করতে পারবো না। সবাই তার জন্য দোয়া করবেন।’

জায়েদ খান বলেন, ‘শিল্পী সমিতি সবসময় ভালো কাজের সঙ্গে রয়েছে। সনি রহমান যখন এ বিষয়ে জানান তখন থেকে তার সাথে থাকার একত্বতা প্রকাশ করি। অবশেষে মসজিদটির কাজ শুরু হচ্ছে। আশা করি দ্রুত এর কাজ শেষ হবে। এই মসজিদটি আধুনিক ভাবে নির্মাণের জন্য যিনি শুরু থেকে কাজ করে যাচ্ছেন এমনকি মোল্লা ফাউন্ডেশনের কাছে মসজিদ নির্মাণের জন্য প্রস্তাব দিয়েছিলেন তিনি সনি রহমান।

এ ব্যাপারে অভিনেতা সনি রহমান বলেন, ‘কাদির মোল্লার সঙ্গে আমার পরিচয় অনেক দিনের। তিনি আমার এলাকার। শুধু এলাকার বললে ভুল হবে তিনি আমার পরিবারেরই একজন। আমার বাবা মারা যাবার পর থেকেই তিনি আমাদের পাশে সব সময় অভিভাবকের মতো ছিলেন। ‘আধুনিক সব সুবিধা নিয়েই নির্মিত হবে মসজিদটি। আশা করা হচ্ছে ২০১৯ সালেই নির্মাণ কাজ শেষ হবে।’

‘কাদির মোল্লা এর আগে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারা দেশের সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে শতাধিক মসজিদ নির্মাণ করেছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ