প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পাবনায় অধ্যাপক আবু সাইয়িদের গাড়ি বহরে হামলা, আহত ৭

কাজী বাবলা, পাবনা প্রতিনিধি : পাবনার সাঁথিয়া বাজারে পাবনা-১ আসনের ঐক্যফ্রন্টের ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী অধ্যাপক আবু সাইয়িদের নির্বাচনী বহরে হামলা করেছে দূর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। এ সময় অধ্যাপক আবু সাইয়িদের গাড়িসহ দুটি গাড়ি ভাংচুর ও ৬/৭ জন আহত হয়। ঘটনার পরপরই প্রার্থী স্বশরীরে সাথিয়া থানায় গিয়ে অভিযোগ করেন।

সাথিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অধ্যাপক আবু সাইয়য়িদ নিজে এসে থানায় অভিযোগ করেছেন। তবে আমরা এ বিষয়ে আর কিছু বলতে পারছি না, কেননা নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা মোতাবেক আমাদের চলতে হচ্ছে।

ঘটনার বিষয়ে অধ্যাপক আবু সাইয়িদ বলেন, আমি ধোপাদহ ইউনিয়নে নির্বাচনী প্রচারনার জন্যে যচ্ছিলাম। পথিমধ্যে সাথিয়া বাজারে পৌছিলে আমরা স্থানীয় লোকজনের সাথে কুশলাদি বিনিময় করার সময় অতর্কিত ভাবে শামসুল হক টুকুর লোকজন আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। এ সময় আমিসহ আমার প্রায় ১০জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে। একটি মোটর সাইকেলসহ সেই চালককেও খুজে পাচ্ছি না। মোট তিনটি মোটর সাইকেল তারা নিয়ে গেছে বলেও জানান তিনি।

এমন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে কোন ভাবেই সুষ্ঠু নির্বাচন করা সম্ভব নয় নির্বাচন কমিশনের। আমার এলাকায় গনজোয়ার দেখে টুকুর লোকজনের মাথা খারাপ হয়ে গেছে। তাই তারা আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে সন্ত্রাসী হামলা করেছে। আমি দ্রুত সেখান থেকে সাঁথিয়া থানায় গিয়ে আশ্রয় নেই। আমি নির্বাচন কমিশন বরাবর লিখিত ভাবে বিষয়টি অবহিত করবো বলেও জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, অধ্যাপক আবু সাইয়দি ১৯৯৬ সালে ওই আসন থেকে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে তথ্যপ্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। একই সাথে তিনি ১৯৭০ সালের নির্বাচনেও আওয়ামী লীগের এমপি নির্বাচিত হন। দেশ স্বাধীনের পর বাংলাদেশের সংবিধান প্রণেতা কমিটির অন্যতম সদস্য ছিলেন। নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের মনোনয়ন পায়নি। পরে দশম সংসদ নির্বাচনেও মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র ভাবে সংসদ নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করেন। পরে এবারেও মনোনয়ন না পেয়ে সে গনফোরামে যোগদান করেন এবং ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করেছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত