প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভোট দিয়ে সরকার পতন করবে জনগণ : মির্জা ফখরুল

বিডি-প্রতিদিন : আওয়ামী লীগ ভোট চুরি করার চেষ্টা করতে পারে, তাই সকলকে ভোটকেন্দ্র পাহারা দিতে হবে এমন মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, কারো কোনো উসকানিতে পা দেয়া যাবে না। বিএনপির কোনো বন্দুক পিস্তল-অস্ত্র নেই, শুধু রয়েছে ভোটের দিনে একটি ব্যালট পেপার। যা দিয়ে সরকার পরিবর্তন করা যেতে পারে। তাই সরকার পরিবর্তনের জন্য আগামী ৩০ তারিখে অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিন ধানের শীষে ভোট দিতে হবে।

বুধবার দুপুরে নিজ জেলা ঠাকুরগাঁওয়ে তার নির্বাচনী এলাকায় মোহাম্মদপুর মাতৃগাঁওয়ে গণসংযোগ ও পথসভায় এসব কথা বলেন মির্জা ফখরুল।

সরকারের সমালোচনা করে তিনি আরও বলেন, গত ১০ বছর আওয়ামী লীগ সরকার জোর করে ক্ষমতায় বসে রয়েছে। তারা গত ১০ বছরে দেশের অর্থনীতি, বিচারব্যবস্থাকে ধ্বংস করে মানুষের সমস্ত অধিকার গুলোকে হরণ করেছে। অন্যায় ও শুধু রাজনীতির প্রতিহিংসার কারণে বেগম জিয়াকে বন্দি করে রেখেছে। তাই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ভবিষ্যতে বেঁচে থাকার অধিকার ঠিক করতে হবে। এ জন্য গণতন্ত্রের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে মুক্ত করতে ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে এবার জোট বেঁধে সকলকে ঐক্যবদ্ধ থেকে ধানের শীষে ভোট দেয়ার আহ্বান জানান তিনি।
তিনি আরও বলেন, সকল দল যখন সরকার পতন করতে ঐক্যবদ্ধ হয়েছে তখন নির্বাচন বানচাল করার জন্য পাঁয়তারা করছে আওয়ামী লীগ। লোকজনকে বলেছি কোনো উসকানিতে পা দেবেন না। আমরা নির্বাচনে যাব এবং শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত দেখব। সরকার ইতোমধ্যে বিএপির গণজোয়ারে হতাশ হয়ে পড়েছে। তাই দলীয় ও প্রশাসনকে ব্যবহার করে নির্বাচন বানচাল করার পরিকল্পনা করছে।

বিএনপির তৃনমূল নেতা-কর্মীদের ধানের শীষে ভোট দিয়ে সরকার পতন করে দেশ মাতা খালেদাা জিয়াকে মুক্ত করার আহবান জানান তিনি। পরে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা, মোহাম্মদপুর, নারগুণ, ছোট খোঁচাবাড়ি, খেরশাডাঙ্গী, কাজিপাড়ায় গণসংযোগ করেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান, নারগুণ ইউপি চেয়ারম্যান পয়গাম আলী, আল মামুন প্রমূখ। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঠাকুরগাঁও-১ ও বগুড়া-৬ আসন থেকে নির্বাচন করছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। নির্বাচনী প্রচারণা হিসেবে আজ তিনি ঠাকুরগাঁওয়ে গণসংযোগ করেছেন।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত