প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শাস্তির ব্যবস্থা না করলে বিশৃঙ্খলা চক্রবৃদ্ধি হারে বাড়বে : আরিফ জেবতিক

খায়রুল আলম : লেখক ও সাংবাদিক আরিফ জেবতিক বলেন, ভোটের লড়াই যে খুব একটি সুখকর হবে তা কিন্তু নয়। কারণ ইতিমধ্যে নির্বাচনী প্রচারণা নিয়ে সহিংসতায় দুজন মারা গেছে।

এ প্রতিবেদকের সাথে আলাপের সময় তিনি বলেন, আমাদের দেশে মারা না গেলে হিসেব করা হয় না। বিভিন্ন দলের অনেক লোক আহত হয়েছে তা এখনো মিডিয়া আসেনি। প্রচারণার প্রথম দিকে এমন অবস্থা, তাহলে তিনশ আসনের  সকল নেতারা বিভিন্ন জায়গায় যখন প্রচারণায় যাবেন, সে সময় কী অবস্থা হবে? আবার কেন্দ্রীয় নেতারা যখন মাঠে নামবেন, তখন দুদলেরই কর্মীরা-সমর্থকরা উৎসাহিত হবে। সে সময় নিজেদের বাহু বল দেখানোর জন্য অনেকে চেষ্টা করবেন। যেটি আগামীতে একটি বড় সংঘাতের দিকে যেতে পারে। এটি নিয়ে খুব আশঙ্কা আছে। সব দিক বিবেচনা করে নির্বাচনী প্রচারণার দিক থেকে মহাজোট এগিয়ে থাকবে। বিএনপি বা ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচনে জয়ী হয়ে আসার সম্ভাবনা আমার নজরে আসছে না। কারণ হচ্ছে, বিএনপি মনোনয়ন দেয়াসহ যে বিশৃঙ্খলাগুলো করেছে,  তারা সেটিই গুছিয়ে ওঠার সময় পাবে না। সহিংসতা নিয়ে নির্বাচন কমিশন থেকে এখনই কোনো ব্যবস্থা না নিলে এটি দিন দিন ব্যাপক আকার ধারণ করবে। নির্বাচন কমিশন থেকে কিছু দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি খুব দ্রুতই দেখাতে হবে, দৃশ্যমান বার্তা দিতে হবে। কোনো ধরনের অন্যায় করলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। এ বিষয়টি প্রতিষ্ঠিত করা গেলে লোকজনের ভেতরে ভয় কাজ করবে। অন্যায় করলাম-সাজা পেলাম না, এমন হলে লোকজন অন্যায় করেই যাবে। নির্বাচন কমিশন শাস্তির ব্যবস্থা না করতে পারলে বিশৃঙ্খালাগুলো চক্রবৃদ্ধি হারে বাড়বে। এক জেলায় মারামারি হয়েছে, এটি দেখে অন্য জেলার লোকেরা উৎসাহিত হবে। এখন থেকে বিজিবি ও সেনাবাহিনী দিয়ে কীভাবে পুলিশকে সহযোগিতা করা যায় সে ব্যবস্থা করা উচিত বলে আমি মনে করি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত