প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গোলাম মাওলা রনিরা আ.লীগের মূল ধারার রাজনীতিতে ছিলো না : আফজাল হোসেন

অপু খান : আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন বলেছেন, বিচার বিভাগ স্বাধীন, নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তের পরেও আপিল করার সুযোগ আছে, এবং সে আপিলের জায়গায় তারা গিয়েছে। হাইকোটের নির্দেশনায় ইমরান এইচ সরকার কিন্তু প্রার্থীতা ফিরে পেয়েছেন। রোববার নিউজ২৪ এর এক আলোচনায় তিনি এ কথা বলেন।

রনিদের বিএনপিতে যোগদান সম্পর্কে আফজাল হোসেন বলেন, রনি সাহেবেরা আমাদের দলে প্রয়োজনীয় ছিলো কি ছিলো না আমরা সকলেই জানি। গোলাম মাওলা রনি, সাঈদ, রেজা কিবরিয়ারা মূল ধারার রাজনীতিতে গত কয়েক দশোকে ছিলো না। বিএনপি এটা নিয়ে এতো চিন্তিত কেন? বঙ্গবন্ধুর খুনি মোশতাকদের তো তারা পার্লামেন্টে নিয়ে গেছে। খুনিদের আশ্রয় দেয়া, তাদের দলে টেনে নেয়া এটা বিএনপির পুরানো অভ্যাস।

বিএনপির মনোনয়ন নিয়ে তিনি বলেন, যে দলটি মনোনয়ন বানিজ্য করে নমিনেশন দেয় সে দলের প্রার্থীদের প্রতি মানুষের আস্থা কিন্তু কমে যায়। আমাদের দলে দুই একটি সমস্যা হয়েছে আমরা কিন্তু তাদের বুঝিয়ে শুনিয়ে সামাল দিয়েছি। সবাই এখন একক প্রার্থী নিয়ে নির্বাচনী দৌঁড়ে আছে, নির্বাচনী যুদ্ধে আছে । আমার দলের নেত্রী শেষ মুহুর্তে এসে যারা মনোনয়ন বঞ্চিত তাদের কাছে একটি খোলা চিঠিও দিয়েছেন। যে মার্কা আমাদের স্বাধীনতা দিয়েছে, যে মার্কা উন্নয়ন দিয়েছে বর্তমানে সেই মার্কার নেতৃত্ব ধারণ করি। আমাদের দলের সবাই এক বাক্যে সেটা মেনে নিয়েছে।

আফজাল হোসেন বলেন, নিজেদের ঘর যখন গোছাতে পারবে না বিএনপি তখন অন্যর ঘরে ঢিল ছোড়ার জন্য ব্যস্ত হয়ে যাবে। আমাদের নেতাকর্মীদের সতর্কভাবে দৃষ্টি রাখতে হবে। আওয়ামী লীগের শৃঙ্খলা না মানলে বহিষ্কার এটা কে বলতে পারে, শাসন করা তারই সাজে সোহাগ করে যে। আমার দলের সাধারন সম্পাদক যখন আঙুল উচিয়ে বলেন তখন বুঝতে হবে সাধারণ সম্পাদক দলের শৃঙ্খলা পালন করতেই আঙুল উচিয়ে কথাটি বলেন।

বিএনপির নেতাদের বিক্ষোপ করা সম্পর্কে তিনি বলেন, আপনি মিডিয়ার গাড়ী ভাংবেন, পুলিশের গাড়ী ভাংচুর করবেন তা তো হতে পারে না। বিক্ষোভের কারণে যদি জনগণের ক্ষতি হয়, সেটা পুলিশ হতে দেবে না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত