প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বেশি সুদের আইডিবি ঋণে আগ্রহ হারাচ্ছে সরকার

রাশিদ রিয়াজ : সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও সংস্থাগুলো ইসলামি উন্নয়ন ব্যাংক বা আইডিবি’র উচ্চ হারের সুদের ঋণে আগ্রহ হারিয়ে ফেলছে। জেদ্দা ভিত্তিক বহুমুখী আর্থিক উন্নয়ন এ প্রতিষ্ঠানটি দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশের উন্নয়নে অংশীদার হয়ে কাজ করলেও উচ্চ হারে সুদের কারণে এবং নি¤œ হারের সহজলভ্য অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ঋণের প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠছে সরকার। সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও সংস্থাগুলো একারণেই আইডিবি’র কোনো ঋণ নিতে চায় না এমনকি ঋণ পেতে বিভিন্ন জটিল প্রক্রিয়া ও দীর্ঘ সময় ব্যয় করতে হয় বলে বিকল্প খোঁজা হচ্ছে। আইডিবি’র ঋণ সুদ ১.৫৫ শতাংশ পর্যন্ত গড়ায়। ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস

সরকারের কাছে বেশ কিছু প্রকল্প প্রস্তাব চেয়েছিল আইডিবি, যা আগামী বছর বাস্তবায়ন করার কথা রয়েছে। অর্থনৈতিক বর্হিসম্পদ বিভাগ বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও সংস্থার কাছে চিঠিও পাঠায়। কিন্তু এধরনের চিঠির কোনো সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না। ইআরডি’র অতিরিক্ত সচিব শামসুল আলম জানান, আমরা এধরনের চিঠির উত্তরের অপেক্ষায় আছি। তিন বছর মেয়াদি বেশ কয়েকটি প্রকল্পে সাড়ে ৩’শ মিলিয়ন ডলার ঋণ দিতে চাচ্ছে আইডিবি। বিদ্যুৎ, যোগাযোগ ও অবকাঠামো নির্মাণ, স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও তথ্যপ্রযুক্তি খাতে এসব প্রকল্পে আইডিবি ঋণ দিতে চাচ্ছে।

সেতু বিভাগ, সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ, বিদ্যুৎ বিভাগ, ডাকা ও টেলিযোগাযোগ, তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বিভাগ, কারিগরী ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগকে ইআরডি’র পক্ষ থেকে এধরনের চিঠি দেওয়ার তিন সপ্তাহ চলে গেলেও কেউ কোনো সাড়া দেয়নি। এমনকি তাগাদা দেওয়া সত্ত্বেও এ ব্যাপারে কোনো সাড়া মিলছে না।
তবে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও সংস্থাগুলোর পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে জাইকা বা বিশ^ব্যাংক আইডিবি’র চেয়ে সহজ শর্তে ও কম সুদে ঋণ দিয়ে থাকে। তারা তা দিতেও চাচ্ছে তাহলে কেন উচ্চ হারের সুদে জটিল প্রক্রিয়ায় আইডিবি’র ঋণ নিতে হবে। সহজ শর্তে চীনও বিভিন্ন ধরনের ঋণ আইডিবি’র চেয়ে কম হারের সুদে দিতে আগ্রহী। তবে আইডিবি’র ঢাকা অফিস এব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। ঢাকা আইডিবি’র আঞ্চলিক কার্যক্রমের হাব হিসেবে গড়ে উঠলেও আর্থিক প্রতিষ্ঠানটির ঋণের প্রতি এধরনের বিমুখ আচরণ হিতে বিপরীত হয়ে উঠছে। গত বছর আইডিবি’ বাংলাদেশের বিভিন্ন উন্নয়ন খাতে ৯০০.৬ মিলিয়ন ডলার ঋণ দিয়েছে। ঢাকা আইডিবি’র চতুর্থ বৃহৎ ঋণগ্রহীতা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ