প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আওয়ামী লীগ নির্বাচনকে নিজের নিয়ন্ত্রণে রেখেছে : এ.বি.এম মোশারফ

কামরুল হাসান : নির্বাচনী প্রচার শুরুর আগেই আওয়ামী লীগ মিছিল, মটরসাইকেল মহড়া, মাইকিং ও জনসভা করে যাচ্ছেন, সংশ্লিষ্ট নির্বাচন কর্মকর্তা ও পুলিশের কাছে অভিযোগ করে কোনো লাভ তো হচ্ছেই না, বরং কিছু কিছু এলাকার প্রতিনিধির সম্ভাব্য এজেন্টদের তালিকা করে পুলিশ ফোন করে হুমকি দিচ্ছে বলে গত শুক্রবার ‘নিউজ টুয়েন্টিফোর’ টেলিভিশন চ্যানেলে এক টকশোতে বলেন সাবেক ছাত্রদল নেতা এ.বি.এম মোশারফ।

তিনি বলেন, ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচন করতে চায় বলেই তারা নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করেছে এবং এই পর্যন্ত এসেছে। তবে এখনো নির্বাচনের পরিবেশ নাই উল্লেখ করে তিনি বলেন, নির্বাচনী প্রচারণায় বিরোধী নেতাদের স্বাধীনতা নেই, জনগণের নিরাপত্তা নেই এবং পুলিশ ও প্রশাসনের নিরপেক্ষ ভূমিকা নেই। এমতাবস্থায় দেশে একটি অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন নিয়ে তিনি শংকিত।
রংপুর-৩ আসনে ঐক্যফ্রন্টের প্রর্থীকে প্রত্যাহারে তৃণমূল বিএনপির ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম সম্পর্কে তিনি বলেন, এটা একটা বিচ্ছিন্ন ঘটনা। এবং এতে শংকার কিছু নেই। তার মতে ৩০০ আসনের মধ্যে একটি আসনের ঘটনাকে বড় করে দেখার কিছু নেই। তবে একজন জননন্দিত রাজনীতিক মনোনয়ন বঞ্চিত হলে তৃণমূলের মধ্যে ক্ষোভ থাকতে পারে, তবে আশংকার কিছু নেই।

রাজনীতিবিদদের হাতে রাজনীতি নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, রাজনীতি আজ ব্যবসায়ীদের হাতে। মুক্তিযুদ্ধ, ভাষা আন্দোলন, জেল-জুলুম, হামলা-মামলা সব করে রাজনীতিবিদ কিন্তু নির্বাচনের সময় নির্বাচন করেন আমলা ও ব্যবসায়ী, যেটা রাজনীতির জন্য অশনিসংকেত। এভাবে চলতে থাকলে এদেশের গণতন্ত্র ধংস হয়ে যাবে। ভবিষ্যৎ রাজনীতিবিদ তৈরি হবে না, আর রাজনীতিবিদ তৈরি না হলে গণতন্ত্র বেশি দিন টিকবে না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ