প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হয় নির্বাচনী মাঠ ছাড়ো, না হয় জেলে যাও : আব্দুস সালাম

জুয়েল খান : বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম বলেছেন, প্রতিদ্বন্দ্বিতার ভয়ে আওয়ামী লীগ বিভিন্ন অপকৌশল করছে, বিভিন্ন মামলা দিচ্ছে বিএনপির নেতাকর্মীদেরকে। তাদের কথা হচ্ছে, হয় নির্বাচনী মাঠ ছাড়ো আর না হয় জেলে যাও। শুক্রবার রাতে একাত্তর টেলিভিশনের এক আলোচনায় তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, এতোগুলো প্রার্থীকে বাতিল করার মতো তেমন কোনো কারণ ছিলো না। হয়তো অন্য কারো উদ্দেশ্য থাকার কারণে মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছিলো। এই যদি হয় পরিববেশ তাহলে কিভাবে সুষ্ঠু নির্বাচন হবে। এখন পর্যন্ত আমরা মনে করি একটা রাজনৈতিক সরকারের অধিনে বাংলাদেশে কোনোভাবেই সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব না। আওয়ামী লীগ ইতিমধ্যে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা শুরু করেছে কিন্তু এটা সম্পূর্ণ নির্বাচনী আচরণ বিধির পরিপন্থী। সরকার ক্ষমতায় থাকার কারণে তারা এই সুযোগ পাচ্ছে কিন্তু আমাদেরকে প্রচার প্রচারণা করার কোনো সুযোগ দিচ্ছে না।

তিনি আরো বলেন, ২০০৭ সালের তখনকার প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া কথা দিয়েছিলেন যে এই নির্বাচন সংবিধান রক্ষার নির্বাচন আমরা পরে আরো একটা নির্বাচন দিবো। খালেদা জিয়া সেই কথা রেখেছিলেন। কিন্তু আওয়ামী লীগ কথা রাখে নি। বিনা ভোটের সংসদ এখনো বহাল রেখেছে আওয়ামী লীগ গায়ের জোরে। জনগণকে কোনো ধরনের ক্ষমতা না দিয়ে।

তিনি জানান, আওয়ামী লীগ ক্ষমতার জোড়ে অনেক কিছু করছে। আ.লীগের যদি জনগণের প্রতি আস্থা থাকে তাহলে ক্ষমতা ছেড়ে দিয়ে নির্বাচন দেন, মানুষকে ভোট দেয়ার সুযোগ দেন। দেখেন জনগণ কাকে বেছে নেয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ