প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জ্বালাও–পোড়াও রাজনীতির সিনেমার বাড়ছে দর্শক

ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোট: জ্বালা–পোড়াও রাজনীতি নিয়ে নির্মিত ‘দহন’ ছবিটি নিয়ে দর্শক আগ্রহ বাড়ছে। আর তাই তো দ্বিতীয় সপ্তাহে এসে প্রেক্ষাগৃহের সংখ্যা বেড়ে গেছে। প্রথম সপ্তাহে ছবিটি অর্ধশত প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি না পেলেও দ্বিতীয় সপ্তাহে তা এসে দাঁড়িয়েছে ৭৬–এ। দর্শক চাহিদা ও প্রেক্ষাগৃহের মালিকের আগ্রহে এমনটা হয়েছে বলে জানালেন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আবদুল আজিজ।

গত ৩০ নভেম্বর মাত্র ৪৭টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় এ সময়ের আলোচিত জুটি সিয়াম ও পূজার দহন ছবিটি। পরিচালক রায়হান রাফির এটি দ্বিতীয় সিনেমা। এর আগে এই পরিচালকই সিয়াম ও পূজাকে জুটি করে বানিয়েছিলেন ‘পোড়ামন ২’ ছবিটি। মুক্তির প্রথম দিন থেকে দর্শক ছবিটি লুফে নিয়েছে—এমনটাই মনে করছেন প্রযোজক, পরিচালক এবং নায়ক–নায়িকারা।

প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার ও দহনের প্রযোজক আবদুল আজিজ জানান, প্রথম সপ্তাহে ছবিটি ব্যবসায়িকভাবে সফল হওয়ায় প্রেক্ষাগৃহ বাড়ছে। দেশের আরও অনেক প্রেক্ষাগৃহের মালিক ছবিটি প্রদর্শন করতে চেয়েছেন। এই সপ্তাহে আমরা অনেক প্রেক্ষাগৃহের মালিকের চাহিদা মেটাতে পারিনি। সামনের সপ্তাহে প্রেক্ষাগৃহের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।’

নায়ক-নায়িকা ও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে আগেই জানা গেছে, দহন তাদের সবার স্বপ্নের একটি সিনেমা। এই ছবির সঙ্গে তাদের সবার অনেক পরিশ্রম, ত্যাগ আর ভালোবাসা মিশে আছে। যদিও ছবিটি মুক্তির আগে ‘হাজির বিরিয়ানি’ শিরোনামের একটি গানের জন্য এই সমালোচনামুখর ছিলেন গানের জগতের অনেকে। সবকিছু মিলিয়ে ছবিটি নিয়ে আলোচনা ছিল তুঙ্গে। সেই আলোচিত ছবিটি এখন দ্বিতীয় সপ্তাহে দেশের প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শিত হচ্ছে।

দহন ছবির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন সিয়াম, পূজা, জাকিয়া বারী মম, তারিক আনাম খান, ফজলুর রহমান বাবু, রাজ রিপা, শিমুল খান, হারুন রশিদ, রাইসা, সুষমা প্রমুখ। অ্যাকশন, প্রেম, নোংরা রাজনীতি, সন্ত্রাসবাদ—এসব নিয়ে নির্মিত হয়েছে দহন। শিগগিরই বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মুক্তি পেতে যাচ্ছে দহন।

দহন ছবিতে সিয়ামের চরিত্রের নাম ‘তুলা’ আর পূজার ‘আশা’। ছবিতে তুলা বখাটে যুবক, বস্তিতে থাকে। একই বস্তিতে থাকে আশা, গার্মেন্টসে চাকরি করে। দুজনের প্রেম আর ভালোবাসার ভেতর দিয়ে বাংলাদেশের জ্বালাও-পোড়াও রাজনীতির ভয়াবহ চিত্র তুলে ধরেন পরিচালক রায়হান রাফি। ছবির গল্পের ভাবনা প্রযোজক আবদুল আজিজের। সিয়াম বলেন, ‘আমার চরিত্রটি ছিল ভীষণ চ্যালেঞ্জিং। তুলা এমন একটা ছেলে, আমরা কেউ চাই না সমাজে কেউ তুলা হয়ে উঠুক। ব্যাপারটা দর্শকের হৃদয় স্পর্শ করেছে। প্রচুর দর্শক প্রতিক্রিয়া পাচ্ছি। ভীষণ অনুপ্রাণিত হচ্ছি। দর্শকেরা ছবিটি দেখে এর মর্ম উপলব্ধি করতে পারলেই আমার কষ্ট কিছুটা হলেও সার্থক হবে।’

পূজা বলেন, ‘এই ছবির জন্য আমরা সবাই অনেক পরিশ্রম করেছি। ছবিটি দর্শকেরা পছন্দ করছেন। প্রেক্ষাগৃহের মালিকেরাও আগ্রহী হচ্ছেন। দর্শক গল্পের সঙ্গে একাত্ম হচ্ছেন, অভিনয়শিল্পীদের অভিনয় দেখে আবেগতাড়িত হচ্ছেন। এই ছবির একজন হিসেবে এর চেয়ে আনন্দের আর কী হতে পারে?’

দহন ছবির আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন জাকিয়া বারী মম। ছবিতে তিনি একজন সাংবাদিক। ছবির অন্য অভিনয়শিল্পীরা হলেন তারিক আনাম খান, রাইসুল ইসলাম আসাদ, রাশেদ মামুন অপু, সুষমা সরকার, এ কে আজাদ সেতু প্রমুখ।

এদিকে, গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর বলাকা প্রেক্ষাগৃহে দহন ছবির কলাকুশলী ও চলচ্চিত্র–সংশ্লিষ্টদের নিয়ে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে জাজ মাল্টিমিডিয়া। আমন্ত্রিত অতিথিরা ছবিটি দেখে মুগ্ধ হন।
সূত্র : প্রথম আলো

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ