প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইয়েলো ভেস্ট বিক্ষোভে ফ্রান্সের রাজস্ব ক্ষতি ৯ হাজার ২০০ কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেছে

সালেহ্ বিপ্লব : একটি বাজে রকম বিচ্ছিরি উইকঅ্যান্ডের মুখোমুখি ফ্রান্সের মানুষ। শনি ও রবিবার হাজার হাজার পর্যটকের পদচারণায় মুখর থাকার কথা প্যারিস, সেখানে রীতিমতো আতংকের ¯্রােত বয়ে যাচ্ছ্ েশিল্প-সাহিত্যের এই নগরীতে। জ্বালানি কর তুলে নেয়ার ঘোষণা দেয়ার পরও বিক্ষোভ স্তিমিত হয়নি, এই শনিবারে আবার রাস্তায় নামার ঘোষণা দিয়েছে ‘ইয়েলো ভেস্ট’ আন্দোলনের কর্মীরা।
হলুদ ভেস্ট পরে বিক্ষোভে নামার কারণে এই আন্দোলনটি ইয়েলো ভেস্ট নামেই পরিচিত পেয়েছে। দেশটির জন্য সবচেয়ে ভয়াবহ বিষয়, গত মাসে শুরু হওয়া এ্ই আন্দোলনের ফলে এরই মধ্যে অভ্যন্তরীণ ব্যবসা-বাণিজ্য খাতে রাজস্ব ক্ষতির পরিমাণ ১ দশমিক ১ বিলিয়ন ডলার (৯ হাজার ২১০ কোটি টাকা প্রায়) ছাড়িয়ে গেছে। বিক্ষোভ না থামলে সামনের দিনগুলোতে আরো কতোটা ক্ষয়ক্ষতি হবে, সেটা ভেবেই উদ্বিগ্ন ফ্রান্স সরকার।
ইয়েলো ভেস্ট বিক্ষোভ ফ্রান্সকে এতোটাই আতংকিত করে তুলেছে, রীতিমতো নিরাপত্তাহীন শহরে পরিণত হয়েছে রাজধানী প্যারিস। আজ পরিস্থিতি আরো উত্তাল হয়ে ওঠার যথেষ্ট আশংকা রয়েছে, পর্যটকদের নিরাপত্তার কথা ভেবে শুক্রবার আইফেল টাওয়ার বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। শুধু তাই নয়, ল্যুভর মিউজিয়াম, প্যারিস অপেরাসহ দর্শনীয় স্থানগুলোও বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এই উইকঅ্যান্ডে বিখ্যাত চ্যাম্পস ইলিসিস অ্যাভিনিউর দোকানপাটগুলো বন্ধ রাখতে বলেছে কর্তৃপক্ষ, শুক্রবারেই অনেক দোকান বন্ধ করে দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।
ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী এডওয়ার্ড ফিলিপ বলেছেন, পরিস্থিতি সামাল দিতে দেশের বিভিন্ন স্থানে নিরাপত্তা বাহিনীর ৮৯ হাজার সদস্য মোতায়েন করা হবে। এর মধ্যে রাজধানীতেই থাকবে ৮ হাজার।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টোফে ক্যাসনার অঙ্গীকার করেছেন, যে কোন মূল্যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখা হবে। শুক্রবার এক প্রেস ব্রিফিং-এ তিনি বলেন, সরকার বিক্ষোভকারিদের নিরাপত্তার কথা যেমন ভাবছে, তেমনি তেমনি সাধারণ নাগরিকদের নিরাপদে চলাফেরার অধিকারও নিশ্চিত করবে সরকার। সম্পাদনা : রেজাউল আহসান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত