Skip to main content

বিরোধীদলীয় নেত্রীকে নির্বাচন বোর্ডের প্রধান নিয়োগ ইথিওপিয়ার

নূর মাজিদ : সাবেক বিচারক এবং বিরোধী দলীয় নেত্রী ব্রিতুকান মিডেক্সাকে দেশটির জাতীয় নির্বাচন বোর্ড-এনইবি’র প্রধান পদে নিয়োগ দিয়েছে আফ্রিকার দেশ ইথিওপিয়ার সংসদ। ইতোপূর্বে, তিনি কারাদন্ডও ভোগ করেছেন। মিডেক্সার নিয়োগের মাধ্যমে ইথিওপিয়ার বর্তমান প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ তার গণতান্ত্রিক সংস্কারের প্রতিজ্ঞা পূর্ণ করছেন বলে পশ্চিমা পর্যবেক্ষকেরা জানিয়েছেন। প্রায় অর্থশতক আগে সামরিক জান্তাকে ক্ষমতাচ্যুত করার পর থেকেই বর্তমান সরকারি দলই দেশটি শাসন করেছে। এই শাসনের সমালোচনার প্রেক্ষিতেই দেশটিতে বহুদলীয় গণতন্ত্র শক্তিশালী করার প্রতিশ্রুতি দেন প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ। ২০২০ সালে ইথিওপিয়ার জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ব্লুমবার্গ তবে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার পূর্বে নিজের টুইটার পোষ্টে ব্রিতুকান মিডেক্সার নিয়োগের খবর জানান প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ। এসময় তিনি বলেন, ‘এই নিয়োগের মাধ্যমে আমি নির্বাচন ব্যবস্থা সংস্কার নিয়ে দেয়া প্রতিশ্রুতি পূর্ণ করেছি। এছাড়াও মিডেক্সার নিয়োগ একটি স্বতন্ত্র ও শক্তিশালী নির্বাচনী বোর্ড গঠনে আমাদের দলের রাজনৈতিক স্বদিচ্ছার প্রতীক। ’ ব্রিতুকান মিডেক্সা বর্তমানে প্রায় বিলুপ্ত বিরোধী রাজনৈতিক জোট কোয়ালিশন ফর ডেমোক্র্যাসির একজন প্রভাবশালী নেত্রী ছিলেন। ২০০৫ সালের বিতর্কিত জাতীয় নির্বাচনে এই জোট নিজেদের বিজয়ের দাবি করেছিল। ওই নির্বাচনের পরেই মিডেক্সাসহ বিরোধী জোটের গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক নেতা, সাংবাদিক ও অধিকার কর্মীদের জেলে পোরে ইথিওপিয়ার সরকার। ২০০৫ সালের নির্বাচন পরবর্তী দমনাভিযানে দেশটির প্রশাসন প্রায় ১৯৩ জন বিক্ষোভকারিকে হত্যা করে।