প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জিয়া সাইবার ফোর্সের মহাসচিব আটক

সুজন কৈরী : রাজধানীর গুলিস্তান এলাকা থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রাষ্ট্র বিরোধী মিথ্যা ও বানোয়াট নিউজ প্রচারণার দায়ে জিয়া সাইবার ফোর্সের মহাসচিব কে এম হারুন অর রশিদকে আটক করেছে র‌্যাব-৩। শুক্রবার সকালে তাকে আটক করা হয়।

র‌্যাব জানায়, র‌্যাব-৩ এর সাইবার মনিটরিং সেল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল আকারে প্রকাশিত পোষ্ট যাচাই, বাছাই, পর্যবেক্ষণ, সাইবার টহল ও সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের উপর গোয়েন্দা নজরদারী করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রাষ্ট্র বিরোধী মিথ্যা ও বানোয়াট পোষ্ট প্রচারণা করে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করে এরকম ফেসবুক আইডি ও ফেসবুক পেইজের সন্ধান পায়। এদের মধ্যে জিয়া সাইবার ফোর্স ফেসবুক গ্রুপ অন্যতম। ২০১৬ সাল থেকে জিয়া সাইবার ফোর্স গ্রুপটি তাদের সহযোগিদের পরস্পরের যোগ সাজসে রাষ্ট্র বিরোধী মিথ্যা ও বানোয়াট পোষ্ট প্রচারণা করে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছে। গ্রুপের অন্যতম এ্যাডমিন এবং মহাসচিব হচ্ছেন হারুন অর রশিদ। ইতিমধ্যে র‌্যাব এই গ্রুপের একাধিক সদস্যকে আটক করেছে।

র‌্যাব আরো জানায়, গোপন সংবাদের র‌্যাব-৩ জানতে পারে, গুলিস্তান এলাকায় জিয়া সাইবার ফোর্সের সদস্যরা নির্বাচনকে সামনে রেখে সরকার বিরোধী অপপ্রচার জোরদার করার পরিকল্পনার জন্য বৈঠকে মিলিত হবে। ওই সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৩ এর একটি আভিযানিক দল অভিযান চালিয়ে জিয়া সাইবার ফোর্সের মহাসচিব হারুনকে আটক করে। তার কাছ থেকে ২টি মোবাইল ফোনসেট জব্দ করা হয়েছে।

র‌্যাব-৩ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বীনা রাণী দাস বলেন, বিভ্রান্তিকর ও মিথ্যা সংবাদের ভিত্তিতে গুজব ছড়িয়ে রাষ্ট্রকে অস্থিতিশীল করাসহ সরকার উৎখাতের প্রচেষ্টা ও জনমনে বিভ্রান্তি এবং প্রধানমন্ত্রী ও অন্যান্য মন্ত্রীদের সম্পর্কে কুরুচিপূর্র্ণ মন্তব্য ও ছবি পোষ্ট করে দেশে অরাজকর পরিস্থিতি সৃষ্টির উদ্দেশ্যে আটক হারুন দীর্ঘদিন ধরে জিয়া সাইবার ফোর্সের এ্যাডমিন ও মহাসচিবের দায়িত্ব পালন করছে।

এ ঘটনায় হারুনের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ